১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:০৩

সোনাগাজীতে সেলিম আল দীনের মেলায় লটারীর নামে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে

আবদুল্লাহ রিয়েল,ফেনী প্রতিনিধি : নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন’র নাম বিক্রি করে ফেনীর সোনাগাজীতে চলছে জুয়া,লটারীসহ নানা অপকর্মের ব্যবসা। লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। সর্বশান্ত সাধারন মানুষ।
অথচ এ শহরের সৃষ্টিশীল থেকে শুরু করে প্রশাসনও নিশ্চুপ! সবার চোখে কাঠের চশমা।তাহলে সবাই কি টাকার মোহে আক্রান্ত? নাট্যাচার্য’র জন্ম ভিটায় এমন কাজ নিন্দনীয়!!আমরা যারা মানুষটিকে ভালোবাসি এমন অপকর্ম দেখলে আমাদের হৃদয়ে রক্তক্ষরন হয়।এমনই আক্ষেপ পোষন করছেন সচেতন মহল।
এই মেলার নামে ফেনীর সোনাগাজী উপজেলায় কয়েক দিন ধরে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে মানুষ ঠকানোর লটারি বিক্রয়। লটারির নাম দেয়া হয়েছে উল্লাস!! সোনাগাজীতে হলেও এ লটারি বিক্রি হচ্ছে ফেনীসহ পাশের জেলা নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ, চট্টগ্রামের মীরসরাই,কুমিল্লার অনেক এলাকায়। আয়োজকদের হিসেব মতে প্রতিদিন প্রায় অর্ধকোটি টাকার লটারি বিক্রয় হয় তাদের।
আর সাধারণ মানুষের পকেট কাটা এ বিপুল টাকার ভাগ বাটোয়ারা করা হয় রাষ্ট্রযন্ত্রের বিভিন্ন স্থরে।স্থানীয় টিভি চ্যানেলের মাধ্যমে প্রতিদিন লাইভ সম্প্রচারিত হয়। সন্ধ্যার পরেই খেটে খাওয়া মানুষগুলো নিজেদের ভাগ্যের পরিবর্তনের আশায় সংসারের নিত্যপ্রয়োজনীয় চাল ডাল না কিনে সে টাকা দিয়ে কিনে আনা লটারির নাম্বার মিলাতে কাজ ফেলে বসে যায় টিভি সেটের সামনে।
ফেনীতে সাধারণ মানুষদের সর্বসান্ত করতে ওয়াপদা মাঠ এলাকায় শুরু হয়েছে অনির্দিষ্টকালের জন্যে বানিজ্য মেলা। এ সকল মেলায় প্রশাসনের কোন তদারকি না থাকায় দাম থাকে যাচ্ছেতাই। আর দিনের পর দিন চলা এ মেলার কারনে ক্ষতির মুখে পড়তে হয় আমাদের ফেনী বাজারসহ বিপনি বিতানের স্থনীয় ব্যবসায়ীরা।
আর সারা বছরধরে ফেনীর ভাষা শহীদ আবদুস সালাম ষ্টেডিয়ামে হাউজি খেলার নামে যে জুয়া চলছে সে কথা আর নাই বল্লাম। তাই প্রশাসনের কর্তাব্যক্তি ও সংশ্লিষ্ট সকলকে এ বিষয়ে ভেবে দেখার অনুরোধ জানাচ্ছি। শুধু নিজেদের কথা নয় সাধারনের কথা একটু ভাববেন কি প্রশাসন।তাই প্রশাসনের কর্তাব্যক্তি ও সংশ্লিষ্ট সকলকে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে সচেতন মহলের জোর দাবী।
কিউএনবি/সাজু/৩১শে মার্চ, ২০১৮ ইং/বিকাল ৪:২২