১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ভোর ৫:৫৬

গোয়াল ঘরের গরু-ছাগল বাচঁতে গিয়ে ঝলসে গেলেন একেন আলী ও তার স্ত্রী শরীর


কুষ্টিয়া খোকসা উপজেলার ওসমান পুর ইউনিয়নের কোমরভোগ গ্রামের মোঃ একেন আলীর বাড়িতে রবিবার রাত ৮ টার দিকে রান্নাঘরের আগুনে পুড়ে গেছে বসত ঘরে সবকটি ঘর।
রান্নাঘরে আগুনের সূত্রপাতের গোয়াল ঘরের গরু, ছাগল বাঁচাতে গিয়ে মোঃ একেন আলী ও তার স্ত্রী দু’জনই গুরুতর ভাবে আগুনে দগ্ধ হয়েছে।

ওসমানপুর ইউনিয়নের চেয়াম্যান মোঃ আনিচুর রহমান বাবলু জানান, রবিবার রাতে রান্নাঘরের আগুনে মোঃ একেন আলীর বসতবাড়ির সবক’টি ঘর পুড়ে যায়। আগুনে পুড়ে যায় গোয়াল ঘরের ১টা গরু ও ২ টা ছাগল। গরু ও ছাগল বাঁচাতে একেন আলী ও তার স্ত্রী গরুর ঘরের আগুনের লেলিহান শিখায় ঝলসে গেছে দু’জনের শরিরের ৫০% শতাংশ।
আহত মোঃ একেন আলী (৫৫) ও তার স্ত্রী (৪৬) খোকসা হাসপাতালে রাতেই ভর্তি হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর সোমবার সকালে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে চলেযায়।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওসমানপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান।

এদিকে সোমবার সকালে আগুনে পোড়াবাড়ি দেখতে যান ওসমানপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আনিচুর রহমান বাবলু তিনি নগত অর্থ সহায়তা দিয়েছেন বলে জানান। তিনি স্থানিয় সাংবাদিকদের জানান, একেন আলীর স্ত্রীর শরিরের ৭০% শতাংশ পুড়েগেছে। বর্তমানে সে কবিরাজি চিকিৎসায় বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছে।
অপরদিকে খোকসা ফ্যায়ার সার্ভিস গত রবিবারের আগুনে পোড়ার বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানান সোমবার সন্ধায় দায়িত্বরত কর্মকর্তা। তিনি আরো বলেন, নদীর ওপারের আগুনে পোড়ার বিষয়ে কুমারখালী ফায়ার সার্ভিস বলতে পারেন।