২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৭:২০

লোহাগড়ায় ইউপি চেয়ারম্যান পলাশ হত্যার প্রধান আসামীর বোনের সংবাদ সম্মেলন

 

শরিফুল ইসলাম নড়াইল প্রতিনিধি : নড়াইলের লোহাগড়ায় প্রকাশ্য দিবালোকে উপজেলা পরিষদ চত্বরে দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান পলাশ হত্যার প্রধান আসামী জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক শরীফ মনিরুজ্জামানের সহোদর বোন সাবিনা ইয়াসমিন দাবী করেন তার ভাই ঢাকায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এ জি আই গ্রুপে ফিন্যান্স ডিরেক্টর পদে কর্মরত থাকা স্বত্তেও তাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে আসামী শ্রেনীভুক্ত করা হয়েছে। পলাশ হত্যার ঘটনায় তার ভাই নির্দোষ । গতকাল মঙ্গলবার বিকালে স্থানীয় একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবী করেন।

গত ১৫ ফেব্রুয়ারী উপজেলা পরিষদের এক সভা শেষে ব্যক্তিগত কাজে সোনালী ব্যাংকে যাওয়ার পথে উপজেলা পরিষদের সেটেলমেন্ট অফিসের পূর্বপার্শ্বে ১২ টার দিকে দূরবৃত্তরা পলাশকে গুলি করে ও কুপিয়ে নির্মম ভাবে খুন করে । এ ঘটনায় নিহতের ভাই সাইফুর রহমান হিলু বাদী হয়ে শরীফ মনিরুজ্জামানকে প্রধান আসামী করে ১৫ জনের নামে লোহাগড়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে । এ মামলায় পুলিশ এজাহারভুক্ত আসামী শরীফ মনিরুজ্জামান ও তার ভাই শরীফ বাকি বিল্লাহকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরন করেছে।

সংবাদ সম্মেলনে সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, মামলার বাদী প্রকৃত অপরাধিদের আড়াল করে গ্রাম্য দলাদলি ও রাজনৈতিক পূর্ব শত্রুতার কারনে আমার ভাইসহ অন্যদের আসমী করা হয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মনির শরীফের মা হোসনেয়ারা বেগম,অপর বোন মরিয়ম বেগম,সুলতানা জাহান, অপর আসামী শরীফ বাকি বিল্লাহর স্ত্রী মাহমুদা শরীফ,ভাই শরীফ আরিফুজ্জামান প্রমুখ।

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং/বিকাল ৫:২৭