১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৩:০৩

লোহাগড়ায় ইউপি চেয়ারম্যান হত্যায় ৪ সন্দেহেভাজন কে আদালতে প্রেরন

 

শরিফুল ইসলাম নড়াইল প্রতিনিধি : নড়াইলের লোহাগড়ায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীরীগের যুগ্ম-সাধারন সস্পাদক লতিফুর রহমান পলাশ (৪৮) হত্যা কান্ডের ঘটনায় সন্দেহে ভাজন ও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৪জন কে আটক করা হয়েছে ।

গতকাল শনিবার (১৭ ফেব্রয়ারি) দুপুরে ১৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাদের আদালতে প্রেরন করা হয় । গ্রেফতার কৃর্তরা হলেন,হত্যাকান্ডের সময় চেয়ারম্যানের সংগে থাকা, ইউপি সদস্য ফরিদ আহম্মেদ বুলু কাজি (৫০), কুমড়ি গ্রামের শরিফ বাকি বিল্লাহ (৩৫), পৌরসভার রাজুপুর গ্রামের সাত্তার শেখের ছেলে মিরান শেখ (৩০) ও কুমড়ি গ্রামের বদির খানের ছেলে সন্ত্রাসী সোহেল খানের স্ত্রী রিজিয়া বেগম (২৬) কে আটক করা হয়। লোহাগড়া থানার অফিসার ইনর্চাজ শফিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন । তিনি জানান চেয়ারম্যান হত্যা কান্ডের সন্দেহে ভাজন ৪জন কে দুপুরে ১৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরন করা হয় ।

উল্লেখ্য গত বৃহস্পতিবার ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারন সস্পাদক লতিফুর রহমান পলাশ উপজেলা পরিষদের হাট বাজার ইজারা সংক্রান্ত একটি সভা শেষে সাড়ে ১২ টার দিকে ব্যক্তিগত কাজে মোটর সাইকেল যোগে উপজেলা চত্বরের সেটেলমেন্ট অফিসের সামনে আসলে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা প্রথমে তাকে গুলি করে ও এলাপাতাড়িভাবে কুপিয়ে নির্মমভাবে খুন করে।

এ রিপোট লেখা (১৭ ফেব্রয়ারি) বিকাল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত থানায় কোন মামলা দায়ের করা হয়নি।প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে লতিফুর রহমান পলাশ আ’লীগের মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হন।

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/১৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং/বিকাল ৫:৫৮