১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১২:৫১

নড়াইলের ইউপি চেয়ারম্যান ও আ’লীগ নেতাকে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা

 

শরিফুল ইসলাম স্টাফ রিপোর্টার নড়াইল : নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ন-সাধারন সস্পাদক লতিফুর রহমান পলাশকে (৫০) গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ চত্বরে সামনে হত্যা করা হয়। তার শরীরে একাধিক গুলির চিহৃ রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও চেয়ারম্যানের স্বজনেরা জানান, বৃহস্পতিবার সকালে দিঘলিয়ার বাড়ি থেকে অফিসের কাজে লোহাগড়া উপজেলায় আসেন ইউপি চেয়ারম্যান পলাশ। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে লোহাগড়া উপজেলা নির্বাচন অফিস এলাকায় দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় দুর্বৃত্তরা ইউপি চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান পলাশকে প্রথমে গুলি করে। তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়লে দুর্বৃত্তরা তাকে শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে মোটর সাইকেলযোগে পালিয়ে যায়।

পরে পলাশের মৃত্যদেহ লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। এ হত্যাকান্ডের খবর পেয়ে দিঘলিয়া এলাকার জনসাধারণসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা হাসপাতাল এলাকায় ভিড় করেন।

লোহাগড়া থানার ওসি শফিকুল ইসলাম জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালে পাঠনো হচ্ছে। এ হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে লতিফুর রহমান পলাশ আ’লীগের মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিজয়ী হন।

 

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/১৫ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং/বিকাল ৪:৪৮