২৬শে মে, ২০১৯ ইং | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | সকাল ৯:১৫

ঘন কুয়াশার কারণে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে টানা সারে ৭ ঘন্টা পর ফেরি চলাচল শুরু


শেখ মোহাম্মদ রতন, স্টাফ রিপোর্টার মুন্সীগঞ্জ : ঘন কুয়াশার কারনে টানা সারে ৭ ঘন্টা পর লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ও মাদারী পুরের শিবচরের কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার দিবাগত মধ্যে রাত ১২ টা থেকে ফেরি চলাচল সম্পুর্ন বন্ধ থাকার পর বুধবার সকাল সারে ৭ টার দিকে ফেরি চলাচল শুরু হয়।

মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া প্রান্তে পাড়াপারের অপেক্ষায় থাকতে হয়েছে ৪০ টি যাত্রী বাস সহ ছোট বড় ৩ শতাধীক যানবাহন। ২০০ শতাধিক যানবাহন নিয়ে মাঝ পদ্মায় নোঙরে ছিল ৪ টি ফেরি। এতে শিমুলিয়া ঘাটেই পারাপারের অপেক্ষায় থেকে শহরাধীক যাত্রীরা চরম ভোগান্তিতে পরেন।

 প্রসঙ্গে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাটের সহকারি ব্যবস্থাপক খালিদ নেওয়াজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গত ২০-২৫ দিন ধরেই শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌপথে ফেরি চলাচল বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। দিনের বেলায় ফেরি কোনরকমে চলাচল করলেও রাত থেকে সকাল পর্যন্ত প্রাই বন্ধ রাখতে হচ্ছে।

ফেরি বন্ধ থাকার কারণে ঘাট এলাকায় প্রায়ই তীব্র যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। এতে করে এই রুটের দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রী ও চালকদের প্রতিদিন চরম দুর্ভোগে স্বীকার হতে হচ্ছে।মঙ্গলবার রাত ১২ টা থেকে ফেরি বন্ধ হওয়ায় বুধবার সকাল সারে ৭টা পর্যন্ত প্রায় ৪০ টি যাত্রীবাহী বাস সহ (নাইট কোচ) ৩ শতাধিক ছোট-বড় যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় থাকতে হয়। এগুলোর মধ্যে মালবাহী ট্রাক ও যাত্রীবাহী বাসের সংখ্যাই তুলনা মূলক ভাবে বেশি।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাটের সহকারি ব্যবস্থাপক খালিদ নেওয়াজ বুধবার সকাল সারে ৭টার দিকে জানান, মঙ্গলবার শিমুলিয়া ঘাট এলাকায় দিবাগত রাত থেকেই কুয়াশার ঘনত্ব বাড়তে থাকে।

এতে রাত ১২ টার দিকে এমন অবস্থা সৃষ্টি হয় যে ফেরির উপর থেকে নিচে পানি পর্যন্ত দেখা যাচ্ছিল না। তাই দুর্ঘটনা এড়াতে ওই সময় শিমুলিয়া ঘাট থেকে ফেরি পারাপার বন্ধ করে দেওয়া হয়। ওই সময় ৩ শতাধিক যানবাহন নিয়ে ড্রাম্প, কে-টাইপ , মিডিয়াম, ও রো রো সহ মোট ৪টি ফেরি মাঝ পদ্মায় নোঙর করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, কাঁঠাল বাড়ি ঘাট থেকে রাত ১২ টার পর থেকেই ফেরি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। বুধবার সকাল সারে ৭টার দিকে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে যানবাহন চলাচলে চাপ বেড়ে চলেছে বলে জানান (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাটের এ কতৃপক্ষ।

কিউএনবি/রেশমা/৭ই  ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং/সকাল ১০:২৪

Please follow and like us:
0
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial