১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৪:৩০

বাণিজ্য মেলার শেষ দৃশ্য!

 

ডেস্ক নিউজ : মাথার ওপর পদ্মা সেতুর অবয়বে বিশাল দরজা! সেই দরজা দিয়ে হাজারো মানুষ ঢুকছে, বেরও হচ্ছে হাজারে হাজারে। কারো হাত খালি নেই বললেই চলে। কেনাকাটা করা ব্যাগভর্তি নানা জিনিস। উদ্যত বাড়ি ফেরার বাহন ধরতে। ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার শেষ সময়ে এমন দৃশ্যই তো সাধারণ! আবার এক বছর পর আসবে এমন সময়!

চোখ গেল গাড়ি পার্কিং অঞ্চলে। গাড়ির ব্যাক ডালা খুলে বাক্স-ব্যাগ গুছিয়ে রাখছেন একজন। জানালেন, তিনি ড্রাইভার। মালিক এক দফা কিনে তাকে গুছিয়ে রাখতে বলে আরো কেনাকাটা করতে ভেতরে গেছেন। একটু পরেই হাজির মালিক রোজিনা ইসলাম। বেসরকারি চাকুরে। আজ একটু আগেভাগে অফিস থেকে বের হয়ে মেলায় এসেছেন। কী কিনলেন? স্মিত হেসে বললেন, অনেক কিছুই। বেশির ভাগই বাসায় ব্যবহারের। ক্রোকারিজ আছে, বিছানার চাদর, কুশন কভার, পর্দা, পাপোশ—এই তো এসব। মেলার শেষ দিকে এসে কিছুটা কম দাম পাওয়া যায়। তাই সাধারণত এমন সময়েই আসি প্রতিবছর।

রোজিনা ইসলামের মতো হাজার হাজার মানুষ শেষ সময়ের কেনাকাটায় ব্যস্ত এখন বাণিজ্য মেলায়। সবার টার্গেট ‘কম দাম আর উপহার’।

ক্রোকারিজ

মেলায় প্রবেশের পর হাতের ডানে ‘ডিজনি’ নামের প্রথম দোকানটাই ক্রোকারিজে ঠাসা। নারী ক্রেতাদের ভিড়ও এখানে বেশি। গ্যাস ও বৈদ্যুতিক চুলা, ফ্রাইপ্যান, চামচ, ওভেন, কারি কুকার, রাইস কুকারসহ বিক্রি হচ্ছে নানা পণ্য। দোকানের বিক্রয়কর্মী রনি জানান, বাড়তি চার দিন পাওয়ায় ভালোই হয়েছে। মেলায় ভিড় অনেক বেড়েছে। বিক্রি ও ভিড় সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাদের।

তিনি জানান, মেলা উপলক্ষে তাদের পণ্যে বিশেষ ছাড় চলছে। একে ‘প্যাকেজ ছাড়’ বলছেন তাঁরা। যেমন—ফ্রাইপ্যানের একটি প্যাকেজ বিক্রি হচ্ছে দুই হাজার ৯৯০ টাকায়।

ছোট-বড় মিলিয়ে পাঁচটি প্যান আছে এই প্যাকেজে। বাজারে এগুলোর দাম অন্তত এক হাজার টাকা বেশি। ছোট ক্রোকারিজের দোকানগুলোতেই ভিড় বেশি। সোনেক্স, কে জেড ইন্টারন্যাশনালসহ আরো কিছু ছোট দোকান অ্যালুমিনিয়াম, মেলামাইন ও কাচের গৃহস্থালি পণ্য বিক্রি করছে। সব দোকানেই চলছে ছাড়।

গৃহসজ্জা সামগ্রী

ভিড় আছে গৃহসজ্জার দোকানগুলোতেও। দেশি-বিদেশি মিলিয়ে অনেক দোকান গৃহসজ্জা সামগ্রী বিক্রি করছে। এসব দোকানেও মূল ক্রেতা নারীরাই। থাইল্যান্ড প্যাভিলিয়নে কৃত্তিম ফুল, গাছ, টব, পাখিসহ আরো অনেক দৃষ্টিনন্দন পণ্যে ঠাসা।

চায়না গিফট কর্নার নামের দোকানটির বিশেষত্ব হচ্ছে—এদের যেকোনো পণ্যের দাম ১৫০ টাকা। ফুল, পাখি, কাঠের তৈরি সৌন্দর্যবর্ধনকারী বিভিন্ন পণ্য পাওয়া যাচ্ছে দোকানটিতে। 

হোমস টেক্সটাইল বিক্রি করছে বিছানার চাদর, জানালা-দরজার পর্দা, কুশন, বালিশের কভার, নকশিকাঁথা, কম্বলসহ আরো কিছু পণ্য।

পণ্যভেদে আছে বিভিন্ন হারে ছাড়। দোকানটির বিক্রয়কর্মী আকিজ মৃধা জানান, শেষ দিন পর্যন্ত এই ছাড় অব্যাহত থাকবে।

আছে ইলেকট্রনিক সামগ্রী

মেলার সময় চার দিন বাড়ানোর ঘোষণার পর বিক্রি বেড়েছে ইলেকট্রনিক সামগ্রীরও। ইলেকট্রিক চুলা, ইস্ত্রি, রুম হিটার, ব্লেন্ডার, বাল্ব, ফ্যান, ওয়াশিং মেশিন, ওভেনের চাহিদা বেশি। বড় ব্র্যান্ডের পাশাপাশি ছোট ছোট স্টলে চীন থেকে আমদানি করা বিভিন্ন ইলেকট্রনিক পণ্য বিক্রি হচ্ছে।

চাই কার্পেট

উত্তরা থেকে স্ত্রী ও দুই মেয়ে নিয়ে কার্পেট কিনতে মেলায় এসেছেন চিকিৎসক রাবিত হাসান। বললেন, কিছু ডিজাইনের কার্পেট শুধু এই মেলায়ই পাওয়া যায়। বিশেষ করে বিদেশি প্যাভিলিয়নে কাশ্মীরি, পাকিস্তানি, ইরানি কার্পেট মেলে। তাই জ্যাম ঠেলে উত্তরা থেকে এত দূর আসা। কয়েকটি পছন্দও হয়েছে। দরদাম করছি।

ব্লেজারও আছে

অনুষ্ঠান আয়োজনে সারা বছরই ব্লেজার পরতে হয়। শীতকালে তো ‘গরম কাপড়’ হিসেবেও চলে। তাই ব্লেজারের দোকানে তরুণদের ভিড় বেশি। বিশ্ববিদ্যালয়পড়ুয়া রায়হান সাদিক জানান, মেলায় অনেক দোকান। দেখেশুনে মানানসই ব্লেজারটি নেওয়া যায়।

বিভিন্ন দোকান ঘুরে দেখা গেল এক হাজার ৩০০ থেকে এক হাজার ৭০০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে ব্লেজারগুলো। শিশুদের ব্লেজারের দাম কিছুটা কম।

তরুণীদের জন্য গহনা ও পাশাক

তরুণীদের জন্য পোশাকের পসরা সাজিয়ে বসেছে পাকিস্তানি ও ভারতীয় কিছু দোকান। বিদেশি প্যাভিলিয়নে ছোট ছোট দোকানগুলোতে থ্রিপিস, ওয়ানপিস, ওড়না, হিজাব, শাড়ি ও বোরকা বিক্রি হচ্ছে বেশি।

গহনার মধ্যে চুড়ি, নেকলেস, কানের দুল, নাকের নথ, নাকফুল, রিং, নূপুরের চাহিদা বেশি। থাইল্যান্ড প্যাভিলিয়নেও গহনার কয়েকটি ছোট দোকান রয়েছে।

বিক্রি হচ্ছে মোবাইল ফোনও

দেশি-বিদেশি মিলিয়ে কয়েকটি ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন পাওয়া যাচ্ছে বাণিজ্য মেলায়। আকর্ষণীয় উপহার ও ছাড় রয়েছে সেটগুলোয়। অপো প্যাভিলিয়নে ছাড় চলছে ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত।

ওয়ালটন মেলায় তিনটি ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ হ্যান্ডসেট নিয়ে এসেছে। বেশি বিক্রি হচ্ছে জেডএক্স৩ মডেলের হ্যান্ডসেটটি। 

 

 

 

কিউএনবি/রেশমা/৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং/সকাল ৯:১১