২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ভোর ৫:৪৩

হাইস্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার ‘অ্যাক্টিভেশন কার্যক্রম’ শুরু

কম্পিউটার প্রোগ্রামিং’এ দেশের হাইস্কুলের শিক্ষার্থীদের আগ্রহী করে তুলতে এবং তাদের দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে গত বছর থেকে শুরু হয়েছে জাতীয় হাইস্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা।

সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের দ্বিতীয়বারের এই আয়োজনের কার্যক্রম ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে।

বুধবার (০২ মার্চ) রাজধানীর বেইলি রোডে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার অ্যাক্টিভেশন কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। একইদিন সিরাজগঞ্জ জেলায় ৬টি, ঝিনাইদহ জেলায় ৭টি, টাঙ্গাইল জেলায় ৩টি ও কুমিল্লা জেলায় ৮ টি স্কুলে এই অ্যাক্টিভেশন কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়।

সারা দেশে মোট ১ হাজারটি হাইস্কুলে চলবে অ্যাক্টিভেশন কার্যক্রম।

অ্যাক্টিভেশন কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিকারুরনিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোছা. সুফিয়া খাতুনের সভাপত্বিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সহকারী সচিব আর এইচ এম আলাউল কবির। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নের্টওয়ার্কের (বিডিওএসএন) সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান, রবি আজিয়াটা লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার, কর্পোরেট অ্যাফের্য়াস ইনামুল্লাহ সাঈদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক হাসনাইন হেইকেল  এবং কিশোর আলো’র নির্বাহী সম্পাদক সিমু নাসের।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই ‘জাতীয় হাইস্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা ২০১৬’ নিয়ে তৈরি ডকুমেন্টরি প্রদর্শন করা হয়।

এরপর সভাপতির বক্তব্যে ভিকারুরনিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোছা. সুফিয়া খাতুন বলেন, শুরু বিজ্ঞান নয়, যে কোনো বিভাগের শিক্ষার্থীরাই প্রোগ্রামিং শিখতে ও করতে পারবে। সারা দেশের শিক্ষার্থীদের অধিক অংশগ্রহনে সফল করতে হবে এই আয়োজন। তাহলে প্রযুক্তিতে এগিয়ে যাবে দেশ।

বিডিওএসএন’র সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান বলেন, বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে হলে আমাদের প্রযুক্তির ভাষা জানতে হবে। শিক্ষার্থীদের প্রযুক্তির সঙ্গে থাকতে হবে এবং প্রোগ্রামিং’র মাধ্যমে বিশ্বের অন্যদের সঙ্গে আমাদের প্রযুক্তি প্রতিযোগিতা করে এগিয়ে যেতে হবে।

উপস্থিত অন্য বক্তারাও তথ্যপ্রযুক্তির নানা সুফল নিয়ে কথা বলেন এবং শিক্ষার্থীদের এর সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে পরামর্শ দেন। এছাড়া  বাংলাদেশকে ডিজিটাল দেশ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য বর্তমান সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহনের কথাও তুলে ধরেন তারা।

উল্লেখ্য, দেশের ১৬টি শহর “ রংপুর, রাজশাহী,  খুলনা, সিলেট, চট্টগ্রাম, বরিশাল, ঢাকা, গোপালগঞ্জ, দিনাজপুর, পাবনা, পটুয়াখালী, টাঙ্গাইল, নোয়াখালী, কুমিল্লা, যশোর ও ময়মনসিংহে” অনুষ্ঠিত হবে এই আয়োজনের কার্যক্রম । সব অঞ্চলের বিজয়ীদের নিয়ে আগামী ১৬ এপ্রিল ঢাকার কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে জাতীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতা ।

ষষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণী এবং পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ৪র্থ সেমিস্টার পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা এতে অংশগ্রহন করছে। প্রোগ্রামিং ছাড়াও আইসিটি কুইজ অন্তর্ভুক্ত থাকছে এতে।

জাতীয় হাইস্কুল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা ২০১৬ এর প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে রয়েছে রবি আজিয়াটা লিমিটেড, বাস্তবায়ন সহযোগী বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক (বিডিওএসএন), একাডেমিক সহযোগিতায় কোডমার্শাল এবং পার্টনার হিসেবে রয়েছে কিশোর আলো, এটিএন নিউজ ও বাংলাদেশ আইসিটি জার্নালিস্ট ফোরাম (বিআইজেএফ)।