২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৮:২৬

ভারত ও বাংলাদেশ প্রতিবেশী হিসেবে শান্তিতে সহাবস্থান করবে : হর্ষবর্ধন শ্রিংলা

 

শামসুল ইসলাম সহিদ,মির্জাপুর (টাঙ্গাইল ) প্রতিনিধি : বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্টদূত হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেছেন ভারত ও বাংলাদেশকে অবশ্যই প্রতিবেশী হিসেবে শান্তিতে সহাবস্থান করতে হবে।আপনাদের সোনার বাংলা আমাদেরও স্বপ্ন।এদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদদের সর্বোচ্চ আত্ম ত্যাগ এবং তাদের ইতিহাস তরুণ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে।

তিনি বৃহস্পতিবার মির্জাপুর কুমুদিনী কমপ্লেক্স পরিদর্শনে এসে ভারতেশ্বরী হোমসের ছাত্রী এবং সুধীজনদের উদ্দেশে একথা বলেন।
সকাল সাড়ে দশটায় ভারতীয় রাষ্ট্রদূত কুমুদিনী কমপ্লেক্সে এসে পৌছালে কুমুদিনী কল্যাণ সংস্থার ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাজীব প্রসাদ সাহা, পরিচালক শ্রীমতি সাহা, পরিচালক (শিক্ষা ) প্রতিভা মুৎসুদ্দি, পরিচালক সম্পা সাহা, কুমুদিনী হাসপাতালের পরিচালক ডা. দুলাল চন্দ্র পোদ্দার, ডা. পিকে রায় তাকে স্বাগত জানান।

কুমুদিনী লাইব্রেরীতে চা চক্র শেষে রাষ্ট্রদূত ভারতেশ্বরী হোমসে যান। এ সময় তিনি ভারতেশ্বরী হোমসের ছাত্রীদের মনোজ্ঞ ডিসপ্লে উপভোগ করেন।পরে সেখানে তিনি সংক্ষিপ্ত বক্তৃতা করেন।তিনি তার বক্তৃতায় বলেন বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা ও উন্নয়নে অংশীদার হয়ে কাজ করতে ভারত সদা প্রস্তুত। ভারতীয় হাইকমিশন সুদীর্ঘ সময় ধরে কুমুদিনীর সাথে কাজ করছে।

এর আগে স্থানীয় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে ভারতীয় রাষ্ট্রদুত বলেন বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচন দেশের আভ্যন্তরীণ ব্যাপার। তবে ভারত চায গণতান্ত্রিক পন্থায় নির্বাচন হোক।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে তিনি বলেন ভারত রোহিঙ্গাদের নিযে কাজ করছে। রাখাইনে বাড়ি ঘর নির্মাণের মাধ্যমে তাদের নিরাপদে থাকার ব্যবস্থা ভারত করছে।

তিস্তা চুক্তি সম্পর্কে তিনি বলেন ভারত ও বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রীি পর্যায়ে আলোচনা হয়েছে। যত তারাতারি সম্ভব এর বাস্তবাযন হবে।

ভারত বাংলাদেশ সীমান্তে হত্যা সম্পর্কে তিনি বলেন, সীমান্ত হত্যা আগের চেয়ে অনেক কমে গেছে। আমরা একে শুন্যের কোঠায় নিতে কাজ করছি।

বাংলাদেশীদের জন্য ভারতীয় ভিসা পদ্ধতি সম্পর্কে তিনি বলেন, এই পদ্ধতিটি আগের চেয়ে অনেক সহজতর হয়েছে, যার ফলে প্রতিবছর আগের চেয়ে দ্বিগুণ মানুষ ভারতে যেতে পারছে।

 

 

কিউএনবি/রেশমা/২৫শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং/দুপুর ২:২০