১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২৬শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৯:৫৫

ধরা পড়ে বললেন, ‘বিদায় এই হিংস্র পৃথিবী’

প্রশাসনের নজর এড়িয়ে কিছু মানুষ ট্রেনে চেপে টিকেট ছাড়াই যাতায়াত করেন। কিন্ত এই ধরনের ঘটনা এতদিন ট্রেনে ঘটলেও, এবার বিমানে ঘটেছে এমন ঘটনা। অবিশ্বাস্য মনে হলেও ঘটনাটা ঘটেছে সুদূর শিকাগো থেকে লন্ডনের হিথরো এয়ারপোর্ট যাওয়াকে কেন্দ্র করে।

একজন ৬৬ বছরের মহিলা মার্লিন জিন হার্টম্যান এই ঘটনাটি ঘটিয়েছেন। জানা গেছে, এটাই প্রথমবার নয়, এর আগেও বেশ কয়েকবার তিনি এরকম কাণ্ড ঘটিয়েছেন। এরকম ঘটনা ঘটানোর জন্য তাকে কয়েকবার জেলেও যেতে হয়েছে। কিন্ত তবু তিনি থামেননি, হাসিমুখে আবার একই রকমভাবে বড় বড় বিমানযাত্রীদের গোষ্ঠীতে মিশে এক দেশ থেকে আরেক দেশে ঘুরে বেরিয়েছেন অবলীলায়।

 

প্রথমবার ২০১৪ সালে তিনি বিমানে চেপে হাওয়াই যাওয়ার পথে ধরা পড়েন এবং সেই একই বছর তিনি বিমানে চেপে লস অ্যাঞ্জেলসেও ঘুরে আসেন। এরপর ২০১৫ সালে তিনি মিনেসোটা থেকে ফ্লাইট ধরে ফ্লোরিডা ঘুরে আসেন এবং আবার সেই বছরই বিমান ধরতে গিয়ে তিনি শিকাগো এয়ারপোর্টে ধরা পড়েন।

সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, তার নিজস্ব কোনও ঘরবাড়ি বা আত্মীয়-পরিজন নেই। তিনি যখন যেখানে পারেন থাকেন, যখন যা পান, তাই খান এবং শেষবার ধরা পরার আগে তাকে শিকাগোর এক গ্রামে বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের জন্য তৈরি নিম্ন মধ্যবিত্ত আবাসনে থাকতে দেখা গেছে।

 

বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, এটা সেই মহিলার মানসিক রোগ। যেহেতু তার কোনও পিছুটান নেই, তাই তিনি বারবার ধরা পড়ে জেলে যাওয়া সত্ত্বেও, এভাবে বিমানে চেপে এক দেশ থেকে আরেক দেশে ঘুরে বেড়ানোর নেশা তৈরি হয়েছে। শেষবার ধরা পড়ে জেলে যাওয়ার সময় একটি সংবাদপত্রকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে তিনি বলেছেন ‘বিদায় এই হিংস্র পৃথিবী।’