১৭ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:৫৩

হাতিয়ার মেঘনা নদী থেকে ৪ জেলেকে অপহরণ

 

ডেস্ক নিউজ : নোয়াখালীর উপজেলা হাতিয়ার  বিচ্ছিন্ন দ্বীপ মেঘনা নদীর পশ্চিম পাশের মৌলভীর চর খাল থেকে ৪ জেলেকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি করছে জলদস্যুরা। মঙ্গলবার দুপুর থেকে জেলেদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মাছ ব্যবসায়ী ইউসুফ, মিজান ও বাবরের কাছে ফোন করে জেলেদের মুক্তি দিতে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করছে জলদস্যুরা। মুক্তিপণ না দিলে ওই জেলেদের প্রাণে হত্যা করে লাশ গুম করার হুমকিও দেয়া হয় বলে জানান ঈসমাঈল।

সোমবার ভোররাতের দিকে ওই ৪ জেলেকে অপহরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাতিয়া মৎস্য ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. ইসমাঈল। 

অপহৃত জেলেরা হলেন, মো.কামাল মাঝি (৫২), জামাল মাঝি (৫০), মো. জুয়েল (৩২) ও হাসান উদ্দিন (৩৫)। তারা প্রত্যেকে ভোলা জেলার দৌলতখান উপজেলার মুন্সীর হাট এলাকার বাসিন্দা। 

হাতিয়া মৎস্য ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো.ইসমাঈল জানান, ওই ৪ জেলে হাতিয়ার চেয়ারম্যান ঘাট এলাকায় অবস্থান করে নদীতে মাছ শিকার করে এবং বয়ার চর বাজারের মাছ ব্যবসায়ী ইউসুফ, মিজান ও বাবরের কাছে মাছ বিক্রি করে।

সোমবার ভোর রাতে ছোট নৌকা নিয়ে মেঘনা নদীতে মাছ শিকারে যাচ্ছিলো ওই ৪ জেলে। প্রতিমধ্যে মেঘনা নদীর পশ্চিম পাশের মৌলভীর চর খালে পৌঁছানো মাত্র তাদেরকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে অপহরণ করে নিয়ে যায় জলদস্যুরা। পরে মঙ্গলবার দুপুর থেকে জেলেদের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মাছ ব্যবসায়ী ইউসুফ, মিজান ও বাবরের কাছে ফোন করে জেলেদের মুক্তি দিতে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করছে জলদস্যুরা। মুক্তিপণ না দিলে ওই জেলেদের প্রাণে হত্যা করে লাশ গুম করার হুমকিও দেয়া হয় বলে জানান ঈসমাঈল।

হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান সিকদার জানান, হাতিয়া মৎস্য ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির নেতারা মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ৪ জেলে অপহরণের বিষয়টি জানিয়েছেন। জেলেদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

 

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/২রা জানুয়ারি, ২০১৮ ইং/রাত ৯:৪৫