২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১:১৮

মুন্সীগঞ্জে ‘কৃতী শিক্ষার্থী ও গুণীজন সম্মাননা’ প্রদান

 

শেখ মোহাম্মদ রতন, স্টাফ রিপোর্টার মুন্সীগঞ্জ : অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশন মুন্সীগঞ্জ কেন্দ্রের আয়োজনে ‘কৃতী শিক্ষার্থী ও গুণীজন সম্মাননা’ প্রদান করা হয়েছে। জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে সোমবার দিনব্যাপী সম্মাননা অনুষ্ঠান হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দেশ বরেণ্য শিক্ষাবিদ অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন।প্রধান আলোচক হিসেবে ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় পর্ষদের সভাপতি ড. নূহ-উল-আলম লেনিন। মুন্সীগঞ্জ কেন্দ্রের সভাপতি মো. জাহাঙ্গীর হাসানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: আনোয়ার হোসেন, নাটেশ্বরের প্রততাত্ত্বিক খনন প্রকল্পে নিয়োজিত চীনা গবেষকদের প্রধান প্রফেসর ড. চাই হুয়ানবো, বীর মুক্তিযাদ্ধা কাজী রোকেয়া সুলতানা রাকা, কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, মুন্সীগঞ্জ কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক আবু হানিফ।

এ বছর গুণীজন হিসেবে সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ঝর্না রহমানকে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। কৃতী শিক্ষার্থী হিসেবে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ট্যালেন্টপুল বৃত্তি প্রাপ্ত ৮৩ জন, জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষায় ট্যালেন্টপুল বৃত্তি প্রাপ্ত ৪৩ জন এবং বর্ষবরণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ এর বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী মোট ৩১ জন শিক্ষার্থীকে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।

অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন বলেন, সভ্যতার জনপদ বিক্রমপুরের যে ইতিহাস এতোকাল অজানার অন্ধকারে তলিয়ে ছিল অগ্রসর বিক্রমপুর তাদের কাজের মাধ্যমে তাকে নতুন আলোয় এনে বিক্রমপুরের প্রত্ত ইতিহাসকে নবযুগে নব আলোয় অভিষিক্ত করছে।

প্রধান আলোচক ড. নূহ-উল-আলম লেনিন বলেন, আমরা আশাকরি আমাদের এই কর্মকান্ডের মাধ্যমে বিক্রমপুর অদুর ভবিষ্যতে ইউনেস্কোর স্বীকৃতির মাধ্যমে বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ হয়ে দাঁড়াবে।

 

 

 

 

 

কিউএনবি/রেশমা/২৬শে ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং/দুপুর ২:২৯