১৭ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ২:৫১

এবার চরভদ্রাসনে ধরা পড়লো ‘রাসেল ভাইপার’

ডেস্ক নিউজ : ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলার সদর ইউনিয়নের খালাশী ডাঙ্গী গ্রামে একটি বিষধর রাসেল ভাইপার সাপ ধরা পড়েছে। চারফুট দৈর্ঘ্যের ওই সাপটি আজ মঙ্গলবার সকালে ধরা পড়ে।
 
সাপটির বিষয়ে ওই গ্রামের বাসিন্দা রাঁধা মণ্ডল জানান, সকালের দিকে বাড়ির পিছনে পদ্মা নদীর কোল ঘেঁষা মুগ ক্ষেত দেখতে গেলে সাপটি তার নজরে আসে। তাৎক্ষণিক সাপের বিষয়টি তিনি পার্শ্ববর্তী কামার ডাঙ্গী গ্রামের বাসিন্দা খসরু মোল্লার ছেলে বেনজীর আহমেদকে জানান। বেনজীর এলাকার কয়েকজন যুবককে নিয়ে মুগ ক্ষেত থেকে সাপটি ধরে বাড়িতে নিয়ে আসেন। সরজমিনে ওই বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় সাপটিকে একটি প্লাস্টিকের ড্রামে আটকে রাখা হয়েছে। এ বিষয়ে বেনজীরের সাথে কথা হলে তিনি সাপটিকে নিরাপদ স্থানে অবমুক্ত করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান- যাতে এটি মানুষের কোন ক্ষতি করতে না পারে।
 
চরভদ্রাসনের বালিয়া ডাঙ্গী গ্রামের বাসিন্দা এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণীবিদ্যা বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী নোমান আল মুক্তাদীরের কাছে সাপের একটি ছবি পাঠানো হলে তিনি নিশ্চিত করেন যে এটি রাসেল ভাইপার সাপ। তিনি আরও বলেন, ‘সাধারণত বরেন্দ্র অঞ্চলে এ সাপের বিস্তৃতি দেখা গেছে। আমাদের দক্ষিণাঞ্চলে এ ধরণের সাপের বিস্তার দিন দিন বাড়ছে। এই সাপ বন্যার পানিতে ভেসে এসে চরাঞ্চলের বিভিন্ন স্থানে বংশ বিস্তার করে থাকতে পারে বলেও জানান তিনি। সাপটি সংরক্ষণ বা অবমুক্তর বিষয়ে উপজেলা বন কর্মকর্তা মো. সালাউদ্দিন এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমাদের এ ধরণের বন্য প্রাণী সংরক্ষণের কোন ব্যবস্থা ও জনবল নেই। যেহেতু সাপটি জীবিত অবস্থায় ধরা পড়েছে, ঘটনাস্থলে গিয়ে জনবসতি যেখানে কম সেখানে অবমুক্ত করা হবে।’
উল্লেখ্য, এর আগে সর্বশেষ গত ১৮ নভেম্বর রাজশাহীর তানোর উপজেলার মুণ্ডুমালা পৌর এলাকার চৌরখোর ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার ঘেওর এলাকায় এই বিষধর সাপের দেখা মেলে।
কিউএনবি/রেশমা/১২ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং/বিকাল ৩:৩৮