২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১:২৯

ঝিনাইদহে ভোট কারচুপি ও অনিয়মের অভিযোগ করলেন আ’লীগ নেতা

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ থেকে: ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মধুহাটী ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রে ভোট কারচুপি ও ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার দুপুরে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে কারচুপির স্বপক্ষে কেন্দ্রে পড়ে থাকা ব্যালট পেপারসহ বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত তুলে ধরেন মিজানুর রহমান মিনা নামে এক মেম্বর প্রার্থী। তিনি মধুহাটী ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি বলে দাবী করেন।

লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, গত ২৮ মে মধুহাটি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে মধুহাটী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দায়িত্বরত প্রিজাইডিং অফিসার এ এইচ এম হুমায়ুন কবির তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মো রবিউল ইসলামের (তালা মার্কা) পক্ষ নিয়ে কাজ করেছেন।

এ জন্য ভোটগ্রহণ শেষে প্রিজাইডিং অফিসার একবার ভোট গণনা করে তড়িঘড়ি করে ভোটের ফলাফল ঘোষণা করেন।

এতে বেসরকারিভাবে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রবিউলকে ২ ভোট বেশি দেখিয়ে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। ভোট গণনা প্রক্রিয়ায় সন্দেহ থাকায় কেন্দ্রে নিয়োজিত মিজানুর রহমান মিনরা পোলিং এজেন্ট মো. আলতাফ হোসেন আরেকবার ভোট গণনা করার জন্য প্রিজাইডিং অফিসারকে অনুরোধ জানান। কিন্তু প্রিজাইডিং অফিসার তাতে কর্ণপাত করেননি।

এ ছাড়া ভোট গণণা শেষে বলা হয় মোট ৮০ টি ভোট বাতিল হয়েছে। এর মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর (তালা মার্কা) ১৯ টি ও মিজানুর রহমান মিনার (ভ্যানগাড়ি মার্কা) ৬১টি বাতিল ভোট রয়েছে। ভোট গণনাকালে প্রিজাইডিং অফিসার মেম্বর প্রার্থী মিজানুর রহমান মিনার পোলিং এজেন্টকে বাতিল ভোট দেখাননি। বাতিল ভোট দেখানোর জন্য পোলিং এজেন্ট অনুরোধ জানালে প্রিজাইডিং অফিসার দেখানোর আশ্বাস দিয়েও পরে আর দেখাননি।

এ ছাড়া ভোট গণনার আগেই প্রিজাইডিং অফিসার কৌশলে রেজাল্ট শিটে মিজানুর রহমান মিনার পোলিং এজেন্টের স্বাক্ষর নিয়ে নেন। লিখিত অভিযোগে বলা হয়,

ভোট গণনার ধরণ ও বাতিল ভোট নিয়ে প্রার্থী মিজানুর রহমান মিনার পোলিং এজেন্ট আপত্তি দিলেও প্রিজাইডিং অফিসার তা আমলে নেন নি। প্রিজাইডিং অফিসার ঠিকমতো বৈধ ব্যালট পেপারও সংগ্রহ করেননি বলে সাংবাদিক সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়। যে রুমে ভোট গ্রহণ করা হয়েছিল সেখানে চেয়ারম্যান ও মেম্বর প্রার্থীদের দুইটি ব্যালট পেপার পড়ে ছিল। সকালে তা কুড়িয়ে পাওয়া যায়।

সাংবাদিক সম্মেলনে কুড়িয়ে পাওয়া দুইটি ব্যালট পেপারের ফটো কপি দেখানো হয়। মেম্বর প্রার্থী মিজানুর রহমান মিনা, জানান, বাতিল ভোটের মধ্যে আমার ভাল ভোট আছে। পুনঃগননা করলে আমিই জয়ী হবো। তিনি মধুহাটী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোট পুনরায় গণনা ও বাতিল ভোট ভাল ভাবে দেখার আহ্বান জানান।

সাংবাদিক সম্মেলনে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা আলতাফ হোসেন, সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আসাদুল ইসলাম, মধুহাটী গ্রামের হাসেম আলী ও শ্যামনগর গ্রামের কামাল হোসেনসহ মেম্বর প্রার্থী মিজানুর রহমান মিনার সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন।

কুইকনিউজবিডি.কম/এমকে/০১.০৫.২০১৬/১৯:১৩