১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৪:০১

নীলফামারীতে ইউপি চেয়ারম্যানের বন্দুকের গুলিতে কৃষক গুলিবিদ্ধ

 

মোঃ আইয়ুব আলী, নীলফামারী প্রতিনিধি : নীলফামারীর জলঢাকায় ইউপি চেয়ারম্যানের বন্দুকের গুলিতে ধান কাটা এক কৃষক গুলিবিদ্ধ হয়েছে। শনিবার (২ ডিসেম্বর) বেলা পৌনে ৩ টায় কৃষক দুলাল চন্দ্র রায় (২৬) কে আশংঙ্কাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সে গোলনা ইউনিয়নের তালুক গোলনা গ্রামের জ্যোতিন চন্দ্র রায়ের ছেলে।স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, প্রতি বছর শীতের আগমনে বিদেশী পাখি এসে ভিড় করেছে দলবাড়ি বিলে। দুপুরে কাঠালী ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান তুহিন মোটরসাইকেল যোগে এসে তার পাখি শিকারী বন্দুক দিয়ে দলবাড়ি বিলের পাখি শিকারের সময় পার্শ্বের জমিতে ধানকাটারত এক কৃষকের (দুলাল চন্দ্র) শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুলির ছাড়া এসে লাগে।

এতে ওই কৃষক মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে এলাকাবাসীর সহায়তায় ইউপি চেয়ারম্যান তুহিন একটি মাইক্রোবাসে করে আহত কৃষককে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। পথি মধ্যে ইউপি চেয়ারম্যান সঠকে পড়েছেন। কিন্তু তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি এলাকাবাসী আটক করেছে। তবে ইউপি চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তাকে মোবাইলে পাওয়া যায়নি।

জলঢাকা থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ইউপি চেয়ারম্যানের মোটরসাইকেলটি থানায় নিয়ে এসেছি। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করা হচ্ছে।

সরকারীভাবে পাখি শিকার নিষিদ্ধ ঘোষনা করার পরেও কেন ওই ইউপি চেয়ারম্যান পাখি শিকার করেছে। তাকে আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবী জানান এলাকাবাসীরা।

 

 

 

কিউএনবি/সাজু/২রা ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং/বিকাল ৫:৩৫