১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৮:২৮

আগৈলঝাড়ায় প্রধান সড়কের বিভিন্ন স্থানে গতিরোধক না থাকায় ঘটছে অহরহ দূর্ঘটনা  

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি : বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার আগৈলঝাড়া-পয়সারহাট-গোপালগঞ্জ মহাসড়কের  বিভিন্ন স্থানে গতিরোধক না থাকায় দূর্ঘটনা দিনদিন বেড়েই চলছে।
উপজেলার দাসের হাট থেকে বড়মাগরা পর্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন স্থানে গতিরোধক স্থাপন করা জরুরী হয়ে পড়েছে। গতিরোধক না থাকায় প্রতিদিনই সড়ক দুর্ঘটনা বাড়ছে। অথচ কোন কোন জায়গায় বিনাপ্রয়োজনে একাধিক গতিরোধক স্থাপন করা হয়েছে। যার ফলে সেই সড়ক দিয়ে ছোট যানবাহন চলাচলে প্রচন্ড সমস্যা হচ্ছে।  
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান,আগৈলঝাড়া-পয়সারহাট-গোপালগঞ্জ মহাসড়কে গাড়ি চলাচলে দিনদিন ব্যস্ততম সড়ক হয়ে ওঠেছে এটি। প্রতিদিনই সড়কটি দিয়ে দিন-রাত শত শত গাড়ি চলাচল করে। কিন্তু সড়কটির পাশে হাসপাতাল, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকায় প্রতিদিনই এসব স্থানে আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে সড়ক দুর্ঘটনা।
যে সকল স্থানে গতিরোধক একান্ত প্রয়োজন তা হলো- দাসেরহাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে, নিমতলা বাসস্ট্যান্ড, গৈলা হাসপাতালের সামনে, রথখোলা শিশু নিকেতন ও বাসস্ট্যান্ডে, এতিমখানা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, শহীদ আ. রব সেরনিয়াবাত ডিগ্রি কলেজের সামনে, এসএম বালিকা বিদ্যালয় ও ভেগাই হালদার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে, কালুরপাড় বাসস্ট্যান্ড, জোবারপাড় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উত্তরপাশে, সরবাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে, বড়মাগরা বাসস্ট্যান্ড, পয়সা উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সামনে।
এ সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে জরুরী গতিরোধক দেয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন পথচারী ও এলাকাবাসী। এর মধ্যে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে একটির বদলে অহেতুক পর পর তিনটি গতিরোধক বানানো হয়েছে। যার ফলে ওই সড়ক দিয়ে ছোট যানবাহন চলাচলে প্রচন্ড সমস্যা হচ্ছে। সড়কগুলোতে জনসাধারণের জানমাল রক্ষার জন্য অতিদ্রুত গতিরোধক দেয়ার জন্য উর্ধতন কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় প্রশাসনের আশুদৃষ্টি কামণা করছেন উপজেলার সকল শ্রেণী-পেশার লোকজন।
কিউএনবি/সাজু/২৪শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং/দুপুর ১২:৫৭