২১শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৫:৫৯

মিঠামইনে আ.লীগ বিদ্রোহী প্রার্থীসহ আহত ৪০

কিশোরগঞ্জ: কিশোরগঞ্জের মিঠামইনে নির্বাচনী সহিংসতায় আওয়ামী লীগের এক বিদ্রোহী প্রার্থীসহ ৪০ জন আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নে এ ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আওয়ামী মনোনীত ঘাগড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. মোছলেহ উদ্দিনের সমর্থনে ঘাগড়া বাজারে নির্বাচনী জনসভা চলছিল।এ সময় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মুখলেছুর রহমানের সমর্থকরা জনসভায় হামলা চালাবে বলে গুজব ছড়িয়ে পড়ে।

এরপর মোছলেহ উদ্দিনের সমর্থকরা ঘাগড়া বাজারে বিদ্রোহী প্রার্থীর নির্বাচনী কার্যালয়ে লাঠি ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। ঘটনার সময় বিদ্রোহী প্রার্থী মুখলেছুর রহমানসহ তাঁর শতাধিক কর্মী সেখানে অবস্থান করছিলেন। হামলায় মুখলেছুরসহ অন্তত ৪০ জন আহত হয়।

খবর পেয়ে মিঠামইন থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে আহতদের মিঠামইন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে বিদ্রোহী প্রার্থীসহ আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। আহতদের মধ্যে ফরহাদ (৩৫)-এর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কিশোরগঞ্জ সদরে জেলা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

হামলার পর মিঠামইনে অবস্থান করা স্থানীয় সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ আবদুল হক নুরুসহ অন্য নেতারা আহতদের দেখতে হাসপাতালে যান। এ সময় সংসদ সদস্য দোষীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবেন বলে আশ্বাস দেন।

এদিকে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মুখলেছুর রহমান এনটিভি অনলাইনের কাছে অভিযোগ করে বলেন, ‘সম্পূর্ণ বিনা উসকানিতে আমার অফিসে হামলা চালিয়ে আমিসহ আমার কর্মীদের আহত করা হয়েছে।’

মিঠামইন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হেসেন জানিয়েছেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এ ঘটনায় কোনো মামলা হয়নি বলেও তিনি জানিয়েছেন।

কুইকনিউজবিডি.কম/এমকে/২৭.০৫.২০১৬/২১:০৩