২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১:৫৮

‘মোবাইল চুরির অভিযোগে শিশুকে বস্তায় ভরে নির্যাতন’

 

ডেস্ক নিইজ : মোবাইল চুরির অভিযোগে লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় পিয়াস নামে চার বছরের একটি শিশুকে বস্তায় ভরে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পিয়াস উপজেলার বামনি গ্রামের মো. সোহেলের ছেলে। আর রাকিব (২২) নামের যে যুবকের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ আনা হয়েছে, তিনিও একই গ্রামের বাসিন্দা।

গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় বামনি গ্রামে এ ঘটনার পর রাত ১০টার দিকে গুরুতর অবস্থায় শিশু পিয়াসকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী সদর হাসপতালে পাঠানো হয়েছে।

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মো. নাছির এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘শিশুটির চোখে-মুখে মারাত্মক জখম হয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে নোয়াখালীতে পাঠানো হয়েছে।’

রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম আজিজুর রহমান মিয়া বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পুলিশ খোঁজ-খবর নিচ্ছে।

শিশু পিয়াসের বাবা সোহেল জানায়, গতকাল বুধবার সন্ধ্যার আগে বাড়ির সামনে থেকে বখাটে রাকিব তার ছেলেকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে নিয়ে যায়। পরে মোবাইল চুরির অভিযোগ তুলে ছেলেকে বস্তায় ভরে নির্যাতন করে। এতে তার চোখ-মুখ ফুলে যায়, কোথাও কোথাও রক্ত ঝরছে।

পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পিয়াসকে উদ্ধার করে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। অবস্থার অবনতি দেখে চিকিৎসকরা তাকে নোয়াখালী সদর হাসপাতালে পাঠান বলে জানান পিয়াসের বাবা। তিনি আরো বলেন, এ ঘটনার পর রাকিব মামলা না করার জন্য হুমকি দিচ্ছে।

কিউএনবি/রেশমা/২রা নভেম্বর, ২০১৭ ইং/সকাল ১০:৫১