২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৩:৪২

জাতীয় পার্টির এমপি শওকত চৌধুরীকে ২৫ কোটি টাকা জমা দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ

মোঃ আইয়ুব আলী, নীলফামারী প্রতিনিধি : নীলফামারী-৪ আসনের জাতীয় পার্টির সাংসদ শওকত চৌধুরীকে ৫০ দিনের মধ্যে ২৫ কোটি টাকা ব্যাংকে জমা দিতে বলেছেন হাইকোট। তা নাহলে শওকত চৌধুরীর জামিন বাতিল হয়ে যাবে বলে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা দুই মামলায় হাইকোর্ট তাঁকে এই নির্দেশ দিয়েছেন। রবিবার (২২ অক্টোবর) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই রায় দেন। ওই রায়ের প্রেক্ষিতে সৈয়দপুর শহরে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।


শওকত চৌধুরী বিরুদ্ধে বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংক থেকে ১২০ কোটি টাকারও বেশি আত্মসাতের অভিযোগে একটি মামলা ওই মামলা করেন দুদক। এদিকে সোয়া কোটি টাকার আত্মসাতের অভিযোগে আরেকটি মামলাও রয়েছে দুদকের।


মামলার এজাহারে বলা হয়, যমুনা এগ্রো কেমিক্যাল কোম্পানি ও যমুনা এগ্রো কেমিক্যাল কোম্পানি লিমিটেড নামের দুটি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংকের কর্মকর্তাদের যোগসাজশে ব্যাংকটির বংশাল শাখা থেকে ৯৩ কোটি কোটি ৩৬ লাখ ২০ হাজার ২৩১ টাকা আত্মসাৎ করে। পরে সুদে আসলে সেটা দাঁড়ায় ১২০ কোটি ৯ লাখ ৮০ হাজার ৯৯০ টাকা। প্রতিষ্ঠান দুটির মালিক শওকত চৌধুরী।


অনুসন্ধান সূত্রে জানা গেছে, ব্যাংক থেকে জালিয়াতির জন্য নানা কৌশল নেয় প্রতিষ্ঠান দুটি। ভুয়া মেয়াদি আমানত (এফডিআর) দেখিয়ে তার বিপরীতে ঋণ নেওয়া, বিটিআরসির একটি হিসাবকে জাল কাগজপত্র তৈরির মাধ্যমে নিজেদের দেখিয়ে ব্যাংক থেকে অর্থ উত্তোলনসহ নানা প্রক্রিয়ায় ওই অর্থ আত্মসাৎ করা হয়।


নাম প্রকাশ না করার শর্তে সৈয়দপুরের এক রাজনৈতিক নেতা জানান, হাইকোর্টের রায়ে আমাদের আসনের এমপির প্রকৃত চরিত্র প্রকাশ পেয়েছে। যা আগামী একাদশ নির্বাচনে এর প্রভাব পড়বে।

কিউএনবি/খায়রুজ্জামান/২২শে অক্টোবর ,২০১৭ ইং/ সন্ধ্যা ৬:২৩