১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ১১:২৮

সৌন্দর্য হারাচ্ছে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত

 

ডেস্কনিউজঃ সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটার বেরি বাঁধের বাইরে স্থাপনা তোলার নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও অবাদে তোলা হচ্ছে নতুন স্থাপনা। বীচ সংলগ্ন জিরো পয়েন্টের পশ্চিম দিকে শুটকি মার্কেটের পিছনে সরদার মার্কেট সংলগ্ন টিনের বেড়া দিয়ে রাতের আধারে করা হচ্ছে স্থাপনার কাজ। অভিযোগ রয়েছে, স্থানীয় প্রভাবশালীদের সহায়তায় আলাউদ্দিন নামে এক কেয়ার টেকারের তত্ত্বাবধানে দীর্ঘ দিন ধরে চলছে এ নির্মাণ কাজ।

জানা যায়, পুকুর ভরাট করে নির্মিতব্য সংশ্লিস্ট স্থাপনার জায়গায় আদালতের চলমান মামলার নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। স্থানীয়রা জানায়, ইতিপূর্বে পানি উন্নয়ন বোর্ড বেরি বাঁধের পূর্ব দিকের সকল স্থাপনা উচ্ছেদ করলেও পশ্চিম দিকের কোন স্থাপনা উচ্ছেদ না করার সুযোগ নিয়ে একটি প্রভাবশালী সিন্ডিকেট নতুন স্থাপনা তুলে হাতিয়ে নিচ্ছে অর্থ। ফলে যত্রতত্র দোকানপাট নির্মাণের ফলে পর্যটকদের চলাচলের পথ বন্ধ হচ্ছে। আর সৌন্দর্য হারাচ্ছে বিশ্বের বিরল সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা জানায়, জমির মালিক হিরু মিয়া স্থানীয় প্রভাবশালী একটি সিন্ডিকেটের সদস্য কেয়ার টেকার আলাউদ্দিনের সহায়তায় ছয় মাসের ভাড়া অগ্রিম নিয়ে দোকান বরাদ্ধ দিচ্ছে। এ বিষয়ে জমির মালিক দাবীদার এসএম সাজিদুল ইসলাম হিরুর সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি সাংববাদিকদের জানান, আদালতের রায় নিয়েই স্থাপনা তোলা হচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে কলাপাড়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) খন্দকার রবিউল ইসলাম জানান, কুয়াকাটায় বেরি বাঁধের বাইরে কোন স্থাপনা নির্মাণ করা যাবেনা। যদি কেউ নির্মাণের চেস্টা করে তবে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

কিউএনবি /বিপুল/১৬ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং/রাত ৮:৩৭