১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং | ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১:২৯
Home / ধর্ম ও জীবন / বেশি লোক একসঙ্গে নামাজ পড়ার ফজিলত

বেশি লোক একসঙ্গে নামাজ পড়ার ফজিলত

 

ডেস্ক নিউজ : জামাআতে নামাজ আদায়ের ফজিলত অনেক বেশি। প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম জামাআতে সঙ্গে নামাজ আদায়ের ব্যাপারে জোর তাগিদ দিয়েছেন। জামাআতে নামাজ আদায়ের গুরুত্ব বুঝাতে তিনি বলেছেন, শিশু এবং নারীরা না থাকলে তিনি ওই সব বাড়ি-ঘর আগুন দিয়ে জালিয়ে দেয়ার নির্দেশ দিতেন; যে সব বাড়িতে নামাজের জামাআতের সময় লোকজন অবস্থান করে।’

প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আরো অনেক ফজিলত ঘোষণা করেন, ‘তিনি বলেন, একাকি নামাজ আদায়ের চেয়ে জামাআতে নামাজ আদায়ে ২৫ থেকে ২৭ গুণ সাওয়াব বেশি।’

জামাআতে নামাজ আদায়ের রয়েছে ব্যক্তিগত, আত্মিক ও সামাজিক অনেক উপকারিতা। তাছাড়া নামাজের জামাআতে যত বেশি লোক সমাগম হবে ততবেশি ফজিলত ও উপকারিতা রয়েছে বলে ঘোষণা দেন প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম।

হজরত উবাই ইবনে কাব রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, একদিন আল্লাহর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আমাদেরকে নিয়ে নামাজ পড়ার পর বললেন, ‘অমুক ব্যক্তি উপস্থিত আছে? উপস্থিত সবাই বলল, ‘না’।(দ্বিতীয় ব্যক্তির খোঁজে) তিনি আবার বললেন, ‘অমুক ব্যক্তি উপস্থিত আছে? উপস্তিত সবাই জানাল, ‘না’।
অতঃপর তিনি বললেন, ‘এ দুই নামাজ (ফজর এবং ইশা) মুনাফেকদের জন্য সবচেয়ে ভারী (কষ্টকর) নামাজ। এ দুই নামাজে কি সাওয়াব নিহিত রয়েছে তা যদি তোমরা জানতে তবে হাঁটুর ভর করে হামাগুড়ি দিয়ে হলেও জামাআতে নামাজ আদায়ের উদ্দেশ্যে অবশ্যই হাজির হতে।

আর (জামাআতের) প্রথম কাতার ফেরেশতাদের কাতারের সমতুল্য। যদি তোমরা তাতে নিহিত মাহাত্ম্য বিষয়ে অবগত থাকতে তবে নিশ্চয় (প্রথম কাতারে দাঁড়ানোর জন্য) প্রতিযোগিতা করতে।

এক ব্যক্তির অন্য কোনো ব্যক্তির সঙ্গে জামাআত করে নামাজ আদায় করা একাকি নামাজ আদায়ের চেয়ে উত্তম।
অনুরূপ দুই ব্যক্তির সঙ্গে জামাআতে নামাজ আদায় করা এক ব্যক্তির জামাআতে নামাজ আদায় করার চেয়ে অধিক উত্তম।

এভাবে জামাআতে নামাজ আদায়ের জন্য লোক সংখ্যা যত অধিক হবে ততই আল্লাহ তাআলার নিকট অধিক প্রিয়।’ (মুসনাদে আহমদ, আবু দাউদ, ইবনে মাজাহ, ইবনে খুজাইমাহ, ইবনে হিব্বান, মুসতাদরেকে হাকেম, সহিহ তারগিব)

পরিশেষে…
জামাআতে নামাজ আদায়ের সব ধরনের ফজিলত লাভে উৎসাহ উদ্দীপনার সঙ্গে নিজে জামাআতে অংশ গ্রহণ করার পাশাপাশি অন্যকেও জামাআতে অংশ নেয়ার প্রতি আগ্রহী করে তোলা ঈমানে দাবি।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে ফজর এবং ইশাসহ প্রত্যেক ওয়াক্ত নামাজে জামাআতের সঙ্গে নামাজ আদায় করার তাওফিক দান করুন। জামাআতে নামাজ আদায়ে হাদিসে ঘোষিত সব ফজিলত ও মর্যাদা লাভের তাওফিক দান করুন। আমিন।

কিউএনবি/রেশমা/১২ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং/দুপুর ১:৪২

Related posts: