১৭ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৩:০৬

সালথায় মাদক বিক্রিতে বাধা, রংমিস্ত্রিকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ

 

ডেস্ক নিউজ : ফরিদপুরের সালথা উপজেলার মাঝারদিয়া গ্রামে মাদক বিক্রি করতে নিষেধ করায় ইলু মোল্লা নামে এক রংমিস্ত্রিকে গলা কেটে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল শুক্রবার রাত ৯টার দিকে বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে মাদক ব্যবসায়ীরা ইলু মোল্লা (৪২) কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে ফেলে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা ঘটনাটি টের পেয়ে ইলুকে উদ্ধার করে নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করে। ইলু ওই গ্রামের আয়নাল মোল্লার ছেলে।

পরিবার ও এলাকাবাসীসূত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের আনু মাতুব্বরের ছেলে জাকির মাতুব্বর ও তার স্ত্রী রোজি বেগম গাঁজাসহ বিভিন্ন মাদক বিক্রি করে। বিষয়টি জেনে প্রতিবেশী মোহাম্মদ মাতুব্বরের মেয়ে জাহানারা বেগম ও ছেলে উজ্জ্বল মাতুব্বর ওই দম্পতিকে এলাকায় মাদক বিক্রি করতে নিষেধ করলে  জাকির মাতুব্বরের লোকজন জাহানারা ও উজ্জ্বলকে মারধর করে।

এ ঘটনায় উজ্জ্বলের দুলাভাই ইলু মোল্লা মাদক ব্যবসায়ী জাকির মাতুব্বরকে ভর্ৎসনা করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয় জাকির ও তার সহযোগীরা। গতকাল শুক্রবার রাত ৯টার দিকে মাঝারদিয়া বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন ইলু মোল্লা। পথিমধ্যে জাকির মাতুব্বর ও তার কয়েকজন সহযোগী ধারালো অস্ত্র দিয়ে ইলুর গলায় কয়েকটি পোচ দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। ঘটনাটি টের পেয়ে এলাকার লোকজন ইলুকে উদ্ধার করে নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে ভর্তি করে।

সালথা থানার ওসি এ কে এম আমিনুল হক বলেন, এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি। আমরা ঘটনা সম্পর্কে খোঁজ-খবর নিচ্ছি।

 

 

 

কিউএনবি/রেশমা/৯ই সেপ্টেম্বর,২০১৭ ইং/দুপুর ১:২২