২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৭:০৮

ফরিদপুরে মা ও নিজ মেয়েকে হত্যার পর আটক যুবক

 

ডেস্কনিউজঃ ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার কামারগ্রামে নিজের মাকে শ্বাসরোধে ও নিজের মেয়েশিশুকে গলা কেটে হত্যা করেছেন এক যুবক। ঘটনার পর তাঁকে আটক করেছে পুলিশ।

গতকাল সোমবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

আটক যুবকের নাম শিশির (৩২)। তিনি একটি বিস্কুট কোম্পানিতে চাকরি করেন।

বোয়ালমারী পৌরসভার কাউন্সিলর শেখ আজিজুর রহমান জানান, শিশির তাঁর মা সুন্দরী দাস ও দুই বছর বয়সী মেয়ে শ্রাবন্তীকে নিয়ে কামারগ্রামে বিভূতি ভূষণ সাহার বাড়িতে ভাড়া থাকেন। তিনি বেঙ্গল বিস্কুট কোম্পানিতে চাকরি করেন। তবে তাঁর স্ত্রী কোথায় থাকেন সে বিষয়ে কোনো তথ্য জানা যায়নি। তাঁদের বাড়ি ঝিনাইদহ বলে জানা গেছে।

বাড়ির মালিক বিভূতি ভূষণ সাহা ও তাঁর স্ত্রী পুতুল সাহা জানান, ছয়-সাত মাস আগে শিশির তাঁদের বাড়ি ভাড়া নেন। মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে তাঁদের ঘরের দরজায় কড়া নাড়া হয়। কিন্তু দরজা না খোলায় দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে দুজনের লাশের পাশে শিশিরকে বসে থাকতে দেখা যায়। পরে পুলিশে খবর দেওয়া হয়।

বোয়ালমারী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শহিদুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। ওই নারীকে শ্বাসরোধে ও মেয়েশিশুকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য দুজনের লাশ ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ওসি বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মনে হয়েছে শিশির হতাশাগ্রস্ত হয়ে এমনটি ঘটিয়েছেন।

 

কিউএনবি/তানভীর /২৯শে আগস্ট, ২০১৭ ইং/ বিকাল ৫:২৮