১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১০:৫২

মোবাইল চুরির অপরাধে যুবককে পিটিয়ে হত্যা

 

ডেস্কনিউজঃ ময়মনসিংহে মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে দিনমজুর এক যুবককে বেধড়ক পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত ওই যুবকের নাম শাওন (২২)। তিনি গৌরীপুর উপজেলার নতুন বাজার এলাকার দিনমজুর আবদুল মান্নানের ছেলে।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ময়মনসিংহ কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম বলেন, মামলার প্রস্তুতি চলছে।

অভিযোগে জানা যায়, শাওন নিজেও দিনমজুরের কাজ করেন। তাঁকে মোবাইল ফোন চুরির অপরাধে পিটিয়ে হত্যা করেছেন ব্যবসায়ী ফিরোজ।

ফিরোজের বরাত দিয়ে নিহতের বড় ভাই আলমগীর হোসেন শনিবার বিকেলে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ মর্গের সামনে এনটিভি অনলাইনকে জানান, শুক্রবার সকালে শম্ভুগঞ্জের ব্যবসায়ী ফিরোজ আহমেদের বাসা থেকে শাওন একটি মোবাইল চুরি করেছিল বলে তাঁকে জানানো হয়। এ ঘটনায় তাঁকে পিটিয়েছে এলাকাবাসী। তাই শাওনের মৃত্যু হয়েছে দাবি করেন ফিরোজ।

স্থানীয় লোকজন জানান, সকাল ১০টা থেকে বিকেল পর্যন্ত শাওনকে বেধড়ক পিটুনি দেওয়া হয়। বিকেলে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। খবর পেয়ে কোতোয়ালি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মাহবুবুর রহমান গিয়ে শাওনকে নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ বিষয়ে মাহবুবকে ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মুশফিকুর রহমান বলেছেন, শাওনকে হাসপাতালে নেওয়ার পথেই তিনি মারা গেছেন।

এ বিষয়ে শাওনের বড় ভাই আলমগীর বলেন, ‘ব্যবসায়ী ফিরোজ আমার ভাইকে যেভাবে মারধর করেছে, এমনকি দুনিয়া থেকে ওঠাই দিছে। এখন আমি এইডার জন্য বিচার চাই। উনি তো আইনের ঊর্ধ্বে না। আমি আমার ছোট ভাই হত্যার বিচার চাই। তাকে শত্রুতা কইরা মারছে। আমি বিচার চাই।’

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম বলেন, স্বজনরা মামলা করার পর আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

কিউএনবি/বিপুল /২৭শে আগস্ট, ২০১৭ ইং/রাত ২:৩৬