১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১২:১৩

বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে যুবককে অমানুষিক নির্যাতন

 

ডেস্কনিউজঃ বরগুনার বামনা উপজেলার পূর্ব সফিপুর গ্রামে জাদুটোনা করে ক্ষতিসাধনকারী সন্দেহে এক যুবকের ওপর নিষ্ঠুর নির্যাতন চালিয়েছে  সহোদর বড় ভাই ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা।

গতকাল শুক্রবার এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় বাসিন্দা সূত্রে জানা যায়, পূর্ব সফিপুর গ্রামের প্রয়াত আদম আলী মল্লিকের ছেলে মো. ইউনুস (৩৫) এলাকায়  ফকির হিসেবে পরিচিত। বড় ভাই মো. ইসমাইলের সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরে তাঁর পারিবারিক দ্বন্দ্ব চলছিল।

শুক্রবার বড় ভাই মো. ইসমাইল, তাঁর স্ত্রী পারুল বেগম ও ছেলে সোহাগ  জাদু টোনার মাধ্যমে ক্ষতিসাধনের অভিযোগ আনেন ইউনুসের বিরুদ্ধে। এরপর ইউনূসকে তাঁর স্ত্রী ও শিশুসন্তানের সামনে একটি বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে লাঠি দিয়ে প্রথমে বেদম মারধর করেন তাঁরা। পরে বোতলে মলমূত্র ভরে তাঁকে খাওয়ানোর চেষ্টা চালান নির্যাতনকারীরা। এতে ইউনুস গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে বামনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এই মুহূর্তে বামনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ইউনুস।

এদিকে নির্যাতনের এই চিত্র স্থানীয় লোকজন মুঠোফোনে ধারণ করে ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়। এই ছবি প্রকাশিত হওয়ার পর স্থানীয় লোকজনের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় বামনা থানা পুলিশ। তবে এর আগেই পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সটকে পড়েন দুই নির্যাতনকারী। অপর নির্যাতনকারী ইসমাইলের ছেলে সোহাগকে পূর্ব সফিপুর থেকে আটকের পর পুলিশে সোপর্দ করে স্থানীয় লোকজন।

এ বিষয়ে বামনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাহাবুদ্দিন জানান, নির্যাতনের ঘটনায় একটি মামলা করা হয়েছে। সেই মামলায় সোহাগ নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে আজ শনিবার আদালতের মাধ্যমে বরগুনা জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

 

কিউএনবি/বিপুল /২৭শে আগস্ট, ২০১৭ ইং/রাত