১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১:১৬

বিয়ে না করেই বসবাস, যুগলকে ছয় মাস সাজা

 

ডেস্কনিউজঃ রাজশাহীর বাঘায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচলানা করে গণউপদ্রব সৃষ্টি করার দায়ে ছয়জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়েছে। আজ বুধবার তাঁদের রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হামিদুল ইসলাম তাঁদের এ সাজা দেন।

সাজা পাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ইস্রাফিল হোসেন ও শাপলা খাতুন বিয়ে না করে এক সঙ্গে অবৈধভাবে বসবাস করার জন্য ছয় মাস এবং মাদক সেবন করে রাতে হট্টগোল করায় তুষার, রাসেল, রানা ও বুদুকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহমুদ জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে গণউপদ্রব সৃষ্টির অভিযোগে বাউশা ধন্দপূর্বপাড়া গ্রাম থেকে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ইনসাফনগর এলাকার ইস্রাফিল ও রাজশাহী বহরামপুর এলাকার শাপলা খাতুনকে আটক করা হয়। তাঁরা স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে এক সঙ্গে বসবাস করে আসছিলেন। সম্প্রতি গ্রামবাসী বিষয়টি টের পেয়ে থানায় অভিযোগ দেয়। পরে থানা পুলিশ গিয়ে তাদের আটক করে।

এ ছাড়া মাদক সেবন করে রাতে হট্টগোল করার অভিযোগে নারায়ণপুর গ্রামের তুষার, রাসেল, রানা ও বুদু মিয়াকে আটক করা হয়। বুধবার তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় তারা নিজেদের দোষ স্বীকার করায় তাদের সাজা দেওয়া হয়। পরে তাদের রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

 

কিউএনবি/বিপুল/২৪শে আগস্ট ,২০১৭ ইং/রাত ১২:৪৮