১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | সকাল ৮:৪৫

পুনঃময়নাতদন্তেও স্পষ্ট হলো না রাউধার মৃত্যুর কারণ

 

নিউজ ডেস্কঃ মালদ্বীপের নাগরিক ও ইসলামী ব্যাংক মেডিক্যাল কলেজের ছাত্রী রাউধা আথিফের পুনঃময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের আত্মহত্যার কথা বলা হয়েছে।

দ্বিতীয় ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক আসমাউল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ‘ভিসেরা প্রতিবেদন হাতে পাওয়া গেছে। তাতে চিকিৎসক লিখেছেন, ‘লাশ পঁচে যাওয়ার কারণে মৃত্যুর সঠিক কারণ নির্ণয় করা গেলো না। তবে সুইসাইডাল ঘটনাটি বাদ দেয়া যায় না’।

ফাইনাল চার্জশিট দেয়া প্রসঙ্গে তদন্ত কর্মকর্তা বলেন,‘ফরেনসিক বিভাগ থেকে রাউধার মোবাইল ও ল্যাপটপের প্রতিবেদন এখনো আমাদের কাছে আসেনি। প্রতিবেদন আসার পর চার্জশিট দেয়া হবে।

তদন্ত কর্মকর্তা বলেন, তবে এ মামলার আসামি ও রাউধার সহপাঠী এখনো আমাদের নজরদারিতে রাখা হয়েছে। এছাড়াও এটা মৃত্যু না আত্মহত্যা বিষয়টি পরিষ্কার হওয়ার জন্য গভীরভাবে তদন্ত চলছে।

উল্লেখ্য, গত ২৯ মার্চ দুপুরে রাজশাহী ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ছাত্রী হোস্টেলের ২০৯ নম্বর কক্ষ থেকে রাউধার লাশ উদ্ধারের পর ৩১ মার্চ মেডিকেল বোর্ড গঠনের মাধ্যমে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ওই প্রতিবেদনে রাউধা আত্মহত্যা করেছেন বলে উল্লেখ করে মেডিকেল বোর্ড। পরে গত ১১ এপ্রিল রাউধার মৃত্যুর ঘটনায় রাজশাহীর ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজের পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন দাখিল করে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, রাউধা আত্মহত্যা করেছে।

এদিকে রাউধার মৃত্যুর ১২ দিন পর গত ১০ এপ্রিল তার সহপাঠী ও কাশ্মীরের নাগরিক সিরাতকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন রাউধার বাবা ডা. মোহাম্মদ আথিফ।

রাজশাহীর আদালতে দায়ের করা ওই মামলাটি আমলে নিয়ে আদালতের বিচারক এজাহার হিসেবে রেকর্ড করার নির্দেশ দেন। পরে হত্যা মামলা রেকর্ড করে পুলিশ। এরপর মামলাটি সিআইডিতে হস্তান্তর করা হয়। গত ২০ এপ্রিল থেকে মামলা দুইটি তদন্ত শুরু করে সিআইডি। আদালতের নির্দেশে তার দ্বিতীয় দফা ময়নাতদন্ত করা হয়।

 

কিউএনবি/রিয়াদ /১০ই আগস্ট, ২০১৭ ইং/দুপুর ২:৫৮