১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ৩:০২

মঠবাড়িয়ায় ঘুষ গ্রহণে অভিযোগে সেটেলমেন্ট অফিসার অবরুদ্ধ

পিরোজপুর থেকে মোঃ মামুন হোসেন: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলা সেটেলমেন্ট অফিসের সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার শংকর নারায়ন দে এর বিরুদ্ধে জমির ৩০ ধারার পর্চা দেয়ার আশ্বাস দিয়ে নিরীহ এলকাবাসীর কাছ থেকে মোটা অংকের ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ উঠেছে।

এলাকাবাসীর কাছ থেকে ঘুষের টাকা গ্রহণ করে দীর্ঘদিন ধরে জমির পর্চা না দিয়ে টাল-বাহানা করায় বুধবার দুপুরে বিক্ষুব্ধ জমির মালিকরা সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার শংকর নারায়ন দে’কে তার নিজ অফিস কক্ষে অবরুদ্ধ করে রাখেন। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম ফরিদ উদ্দিন খবর পেয়ে সেটেলমেন্ট অফিসে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। এসময় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ওই কর্মকর্তার গ্রহণকৃত ঘুষের টাকা ফেরত ও বিচার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, উপজেলার সাপলেজা ইউনিয়নের নলীজয়নগর মৌজার ৩০ ধারার কাজ চলছে। ওই মৌজার প্রবাসী বাদল সিকদারের স্ত্রী মোসাঃ রাবেয়া বেগম ও কৃষক মোঃ গোলাম মোস্তফা ভোগ দখলীয় ২ একর ক্রয় ও পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত জমির ৩০ ধারার পর্চার জন্য সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার শংকর নারায়ন দে তাদের কাছে মোটা অংকের ঘুষ দাবী করেন। কিন্তু দাবীকৃত টাকা দিতে না পারায় জমির পর্চা দিতে টাল-বাহানা শুরু করে। একপর্যায় কৃষক গোলাম মোস্তফা ৩০ হাজার ও রাবেয়া বেগম ১০ হাজার টাকা করে ৭জন এলাকাবাসীর কাছ থেকে শংকর নারায়ন দে প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেয়। তিনি টাকা নিয়ে জমির পর্চা না দিয়ে অন্যত্র বদলী খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসী বুধবার টাকা ফেরত চেয়ে তার অফিসে তাকে অবরুদ্ধ করে রাখে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস, এম ফরিদ উদ্দিন ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এব্যাপারে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এঘটনায় বরিশাল জোনাল সেটেলমেন্ট অফিসার এজাজ আহমেদ জাবের জানান, ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকায় তাকে অন্যত্র বদলী করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, নিরীহ এলকাবাসীর কাছ থেকে ঘুষ গ্রহণের সু-নির্দিষ্ট লিখিত অভিযোগ পেলে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মঠবাড়িয়ায় বাক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ ॥ বৃদ্ধ গ্রেফতার
পিরোজপুর প্রতিনিধিঃপিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার মিরুখালীতে বাক প্রতিবন্ধী কিশোরী (৩০) কে ধর্ষণের অভিযোগে শামসুল হক তালুকদার (৬০) নামে এক বৃদ্ধাকে এলাকাবাসী আট করে পুলিশে দিয়েছে। পুলিশ ওই বৃদ্ধের আত্মীয়ের বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করে। শামসুল হক উপজেলার বড় শৌলা গ্রামের মৃত আসমত আলী তালুকদারের ছেলে।

পুলিশ ওই প্রতিবন্ধীর বাবার বরাত দিয়ে জানায়, বাক প্রতিবন্ধী ওই কিশোরী মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে প্রকৃতির ডাকে সারা দিতে বাড়ির বাইরে বের হলে পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা বৃদ্ধ শামসুল হক তাকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় ওই কিশোরী হাউমাউ করলে এলাকাবাসী বৃদ্ধকে হাতে-নাতে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই বৃদ্ধকে আটক করে এবং কিশোরীকে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে বৃদ্ধের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে বুধবার সকালে মামলা করেন। মামলার পর কিশোরীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পিরোজপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ে প্রেরণ করা হয়েছে।

মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ধর্ষণের অভিযোগে কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলার পর পরই বুধবার দুপুরে বৃদ্ধকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

কুইক নিউজ বিডি.কম/এএম/২৮.০৪.২০১৬/১৭:১১