১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১২:৩৫

হলুদ সাংবাদিকের দাপটে বিড়ম্বনার শিকার

রাণীশংকৈল প্রতিনিধি: ঠাকুরগাওয়ের রাণীশংকৈলে হলুদ সাংবাদিকের দাপটে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে প্রকৃত কলম সৈনিকরা। উদ্বেগজনক হারে হলুদ সাংবাদিক বৃদ্ধি পেয়েছে।

এসব সাংবাদিক সারা বছর চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি কাজে সহযোগিতা করে মাশুল আদায় করা, রাস্তাঘাট স্কুল কলেজ মাদ্রাসা নির্মানকাজে টোল আদায় করা, নেশার সাথে সম্পৃক্ত, মাদকের কর আদায় করে থাকে। কখনও প্রেস ক্লাবের নাম ভাঙিয়ে নিজের পকেট ভারি করা যা আদৌ প্রেস ক্লাবের উন্নয়ন কাজে আসে না।

অপরাধিরা নিজেদের জায়গা ঠিক রাখার জন্য কর দেয়া থেকে শুরু করে তাদেরকে সহযোগিতা ও ইন্দন যোগিয়ে থাকে। এছাড়াও জাতীয় পর্যায় থেকে শুরু করে স্থাণীয় নির্বাচনসহ যে কোন নির্বাচন হলে ভোট কেন্দ্রগুলোতে এদের বিচরণ দেখা যায় বেশ দাপটের সাথে। এমনকি নির্বাচনের সময় অনেক রাজনৈতিক নেতাদের সাংবাদিকের নেমপ্লেট ব্যবহার করে বিচরণ করতে দেখা যায়।

প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তা বাবুদের দুর্বলতার সুযোগে এসব হলুদ সাংবাদিক আস্কারা পেয়ে যায়। সাংবাদিক পরিচয় দিলেই নিজেদের অপকর্ম ঢাকতে নির্বাচন কমিশন, নির্বাচন সমন্বয় কর্মকর্তাগণ নির্বাচনী এলাকা পরিদর্শনের অনুমতি দিয়ে দেন। কলম সৈনিকরা সারা বছর মাঠে থেকে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। নিছক তাদের এসব দায়িত্ব পালন। মূল্যায়ন করা হচ্ছে না।

বরং হলুদ সাংবাদিকরা সময় বুঝে বেশি পরিমান ফয়দা আদায় করে। এসব ভুয়া সাংবাদিক কিছু নামধারী অনিয়মিত অথবা কালেভদ্রে প্রকাশ হয় এমন পত্রিকার কার্ড দেখিয়ে বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা কর্মচারীগণকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে তদারকি তদবিরসহ নানা অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। সাধারণ মানুষ, সুধিমহল এসব হলুদ সাংবাদিকদের কিছু বলতে পারেনা। মনের কষ্টগুলো প্রকাশ করে থাকেন প্রকৃত সাংবাদিকদের। এতে প্রকৃত সাংবাদিকরা বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন।

কুইক নিউজ বিডি.কম/আনোয়ার হোসেন আকাশ/ইআ/২৫.০৪.২০১৬/১২:৪০