১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৩:২০

পাবনায় ৩দিন ব্যাপী গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহি ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

পাবনা থেকে খাইরুল ইসলাম: গ্রামীন মানুষের নির্মল বিনোদনের নানা ধরণের খেলাধুলা বা প্রতিযোগিতা দিনকে দিন হারিয়ে যাচ্ছে। সেখানে ঠাঁই করে নিচ্ছে ক্রিকেট সহ অন্যান্য খেলা। তবে এখনও দেশের বিভিন্ন প্রান্তে টিকে আছে হারিয়ে যাওয়া গ্রামীণ খেলা কিংবা প্রতিযোগিতা। বিলুপ্তির পথে যাওয়া তেমনি একটি প্রতিযোগিতা হলো গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহি ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতা। নতুন প্রজন্মের মাঝে এই প্রতিযোগিতা টিকিয়ে রাখার অংশ হিসেবে উৎসব মুখর পরিবেশে পাবনায় হয়ে গেলো তিনদিনব্যাপী গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহি ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতা।

Pabna Horse Racing Compitition Photo-3

বর্ষবরণ উপলক্ষ্যে পাবনা সদর উপজেলার শ্যামপুর মাঠে আয়োজন করা হয় গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহি ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতা। মালঞ্চি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে গত ১৪ এপ্রিল পহেলা বৈশাখ থেকে শুরু হয় এই প্রতিযোগিতা। তিনদিনব্যাপী এই প্রতিযোগিতার ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয় শনিবার বিকেলে। প্রতিযোগিতায় পাবনা, নাটোর, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, নওগাঁ ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ২৮টি ঘোড়া অংশ নেয়। প্রতিদিন ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতা উপভোগ করতে ভীড় জমে নানা বয়সী হাজারো মানুষের। বিলুপ্তির পথে এই ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতা দেখতে পেরে আনন্দে উদ্বেলিত সাধারণ মানুষ। প্রতিযোগিতা দেখতে প্রচন্ড রোদের মধ্যে নারী, শিশু, কিশোর-কিশোরীদের উপস্থিতিও ছিল লক্ষ্যনীয়। প্রতিবছরই এমন আয়োজন দেখতে চান তারা। প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে নাটোর থেকে আসা শ্যামল বাংলা ঘোড়ার মালিক কামরুজ্জামান স্বপন জানান, আমি ১০ বছর ধরে দেশের বিভিন্ন জেলায় ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে আসছি। মুলত বাপ-দাদার ঐতিহ্যকে ধরে রাখার জন্য শখের বশে এই কাজ করে যাচ্ছি। আয়োজক ও মালঞ্চি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল আলিম এবং সহ-সভাপতি জালাল উদ্দিন জানান, গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহি ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতা টিকিয়ে রাখতে এবং নতুন প্রজন্মের মাঝে এই নির্মল বিনোদনের মাধ্যমকে ছড়িয়ে দিতে এই ঘোড় দৌড় প্রতিযোগিতার আয়োজন।

Pabna Horse Racing Compitition Photo-1

প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেন নাটোর জেলার বঙ্গবীর ঘোড়ার মালিক মানিক হোসেন, দ্বিতীয় স্থান লাভ করেন বগুড়ার ধুনটের সোনার তরী ঘোড়ার মালিক মিলন হোসেন এবং তৃতীয় স্থান লাভ করেন নাটোরের শ্যামল বাংলা ঘোড়ার মালিক কামরুজ্জামান স্বপন মাস্টার। প্রথম পুরস্কার দেয়া হয় একটি ফ্রিজ, দ্বিতীয় পুরস্কার ছিল ২১ ইঞ্চি রঙিন টেলিভিশন এবং তৃতীয় পুরস্কার দেয়া একটি ১৪ ইঞ্চি রঙিন টেলিভিশন। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হাসান শাহীন, মালঞ্চি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল আলিম, সহ-সভাপতি জালাল উদ্দিন প্রমুখ।

কুইক নিউজ বিডি.কম/এএম/১৭.০৪.২০১৬/১৫:৪৮