২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১:০৭

হাতিয়ায় ২০ গ্রাম প্লাবিত, ৬ জেলে নিখোঁজ

নিউজ ডেস্কঃ বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের কারণে নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার মেঘনা নদীতে অস্বাভাবিক জোয়ার দেখা দিয়েছে। এতে উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চলের কমপক্ষে ২০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

এদিকে রেববার (১১ জুন) বিকেলে সাগর থেকে কুলে ফেরার পথে একটি মাছ ধরার ট্রলার জড়ো আবহাওয়ার কবলে পড়ে ডুবে ৬ জেলে নিখোঁজ হয়েছে।

হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) খন্দকার রেজাউল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, নিম্নচাপের কারণে রোববার বিকেল থেকে সাগরে জোয়ারে অস্বাভাবিক হারে পানি বাড়তে থাকে। এতে উপজেলার নলচিরা, সুখচর, চরঈশ্বর ও তমরুদ্দিন ইউনিয়নের পূর্ব দিকে বেড়িবাঁধ না থাকায় পানি প্রবেশ করে প্লাবিত হয়েছে ওই তিনটি ইউনিয়নের অন্তত ২০টি গ্রাম। এতে হাজার হাজার লোক পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন।

ইউএনও খন্দকার রেজাউল করিম আরো জানান, বঙ্গোপসগার থেকে মাছ ধরে ফেরার পথে হাতিয়ার মেঘনা নদীর দমার চরের কাছে ঝড়ের কবলে পড়ে আবদুল ওহাবের একটি মাছ ধরার ট্রলার ডুবে যায়। এসময় ওই ট্রলারে থাকা ৯ মাঝি মাল্লা কোন রকমে সাতরে কুলে ফিরে এলেও ৬ জেলে নিখোঁজ হয়। তাদের সোমবার সকাল পর্যন্ত কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। নিখোঁজ জেলেরা হলেন- হাতিয়ার হারুন, রুবেল, এনায়েত, সুফিয়ান, জহির ও আলমগীর।

ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় পরিদর্শন করেছেন জানিয়ে ইউএনও জানান, প্লাবিত বেশ কয়েকটি জায়গা পরিদর্শন করা হয়েছে। ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ দিয়ে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে একটি প্রতিবেদনও ইতোমধ্যে পাঠানো হয়েছে।

কিউএনবি/রিয়াদ/১২ই জুন, ২০১৭ ইং/দুপুর ১:১৩