২২শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৫:২২

রংপুরে পুলিশ-দোকান কর্মচারী হাতাহাতি

ডেস্কনিউজঃ  রংপুর জেলা পরিষদ সুপার মার্কেটের এক দোকান কর্মচারীকে পেটানোর অভিযোগে পুলিশ বক্স ভাঙচুর ও কর্মচারীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। পরে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল সকাল ১০টার দিকে রংপুর জেলা পরিষদ সুপার মার্কেটের পুলিশ বক্সের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা এক পুলিশ কনস্টেবলের সঙ্গে আল-আমিন নামে এক দোকান কর্মচারীর ধাক্কা লাগে। পরে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ধাক্কাধাক্কি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে এবং দুপুর ১২টা পর্যন্ত পুলিশের সঙ্গে কর্মচারীদের কয়েক দফা ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া হয়।

এ সময় মার্কেটের সামনে নির্মিত পুলিশ বক্স ভাঙচুর করে কর্মচারীরা। পরে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। কর্মচারীরা অভিযোগ করে, ওই পুলিশ সদস্য সামান্য ধাক্কা লাগায় কর্মচারী আল-আমিনকে বেধড়ক পিটিয়েছে। পরে এ ঘটনা মার্কেটের ভেতরে থাকা অন্য কর্মচারীদের মধ্যে জানাজানি হলে তারা বিক্ষুব্ধ হয়ে দোকানপাট বন্ধ রেখে বিক্ষোভ করে। তবে এ সময় তারা কোনো ভাঙচুর করেনি বলে জানায়।

এ ব্যাপারে সুপার মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক বুলবুল জানান, আমরা ব্যবসায়ীরা কোনো সংঘাত চাই না। তাই কর্মচারীদের ফিরিয়ে এনে দোকানে বসতে বলা হয়েছে। এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হোসেন বলেন, সামান্য ভুল বোঝাবুঝির কারণে এ ঘটনা ঘটে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক।

কিউএনবি/বিপুল/৪ঠা জুন, ২০১৭ ইং/ রাত ১১:২০