২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | দুপুর ১:৩৭

কুমিল্লায় ভুয়া নারী ম্যাজিস্ট্রেটসহ ৪ প্রতারক আটক

ডেস্কনিউজঃ কুমিল্লায় ভুয়া নারী ম্যাজিস্ট্রেট, ডিবি পরিদর্শক ও পেশকারসহ ৪ প্রতারককে আটক করেছে পুলিশ।জেলার বুড়িচং উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পার্শ্বস্থ কুমিল্লার নিমসার বাজার থেকে রবিবার দুপুরে বুড়িচং থানা পুলিশ তাদের আটক করে। এসময় তাদের নিকট থেকে ৫টি আইডি কার্ড ও একটি ওয়াকিটকি উদ্ধার করা হয়। আটককৃত ৪ প্রতারকের বাড়ি জেলার দাউদকান্দি উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে।

পুলিশ ও ব্যবসায়ীরা জানান, রোববার বেলা ১১টার দিকে ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট মরিয়ম বেগমসহ ৬ প্রতারক নিমসার বাজারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার নামে নিজেদেরকে ম্যাজিস্ট্রেট ও ডিবি পুলিশের কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে প্রতারণা করে। এ সময় ভয়-ভীতি দেখিয়ে ৫টি দোকান থেকে নগদ অর্থ হাতিয়ে নেয়। কিন্তু ওই প্রতারক চক্রের কথাবার্তা ও আচরণে সন্দেহ হওয়ায় স্থানীয়রা তাদেরকে নিয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে আটকে রাখে। খবর পেয়ে বুড়িচং থানার দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৪ প্রতারককে আটক করে।

আটককৃতরা হচ্ছে- জেলার দাউদকান্দি উপজেলা নুরপুর গ্রামের আলী আহম্মদ সরকারের মেয়ে ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট মরিয়ম বেগম (৩২), ভুয়া ডিবি পরিদর্শক একই উপজেলার সাহাপাড়া গ্রামের শুভ চন্দ্র ঘোষের ছেলে লিকন চন্দ্র ঘোষ (৩৪), পেশকার পূর্বপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে আবুল ফয়েজ (২৯), গাড়ির চালক ভাগলপুর গ্রামের সফিকুল ইসলামের ছেলে শেখ ফরিদ (৩৫)। এসময় পালিয়ে যায় অপর দুই প্রতারক দাউদকান্দির মাইজপাড়া গ্রামের সহিদ উল্লার ছেলে সোহাগ ও একই গ্রামের মমিন মিয়ার ছেলে ইকবাল হোসেন।

এ বিষয়ে বুড়িচং থানার ওসি মনোজ কুমার দে জানান, আটককৃতরা দীর্ঘ দিন ধরে কখনো অপরাধ তথ্যচিত্র পত্রিকার সাংবাদিক, কখনো ম্যাজিস্ট্রেট আবার কখনো পুলিশের ভুয়া পরিচয়ে প্রতারণা করে আসছিল। বিকালে তাদের বিরুদ্ধে থানায় প্রতারণার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

কিউএনবি/বিপুল/৪ঠা জুন, ২০১৭ ইং/ সন্ধ্যা ৭:১১