২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | রাত ১২:৫৮

ডুবে গেছে রেল লাইন, ঢাকা-চট্টগ্রাম যোগাযোগ বন্ধ

ডেস্কনিউজঃ চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে বড়তাকিয়া এলাকায় রেললাইন ডুবে গেছে। বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টা থেকে এই রিপোর্ট লেখার আগ পর্যন্ত ঢাকা-চট্টগ্রাম রেল লাইনে উভয় দিক থেকে রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

চিনকির আস্তানা রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় পাহাড়ি ঢলে বড়তাকিয়া এলাকায় রেললাইন ডুবে যায়। এসময় রেল যোগাযোগ পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়। বড়তাকিয়া স্টেশনে আটকা পড়ে আছে মহানগর গৌধুলী, বাতিল করা হয়েছে সোনার বাংলা। এছাড়া মুহুরীগঞ্জ স্টেশনে আটকা পড়ে আছে সাগরিকা।

জানা গেছে, চট্টগ্রাম রেলস্টেশন থেকে মহানগর গৌধুলী ট্রেনটি ছেড়ে এসে বড়তাকিয়া স্টেশনে আটক পড়ে। এছাড়া চট্টগ্রাম থেকে বিকেল ৫টায় সোনার বাংলা যে ট্রেনটি ছেড়ে আসা কথা ছিল সেটি বাতিল করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে পরবর্তী ট্রেনগুলো সিডিউল মত ছাড়া হয় কিনা তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।

অন্যদিকে পাহাড়ি ঢল ভারি বর্ষণে উপজেলার খৈয়াছড়া, মায়ানী, ওয়াহেদপুর, ইছাখালী, কাটাছড়া, করেরহাট, জোরারগঞ্জ, ধুম, মিঠানালা, সাহেরখালী, মঘাদিয়া ও চমানপুর, দূর্গাপুর ও মিরসরাই সদর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে গ্রামীণ সড়ক ভেঙে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। পাহাড়ি ঢল ও জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে প্রকল্পের মাছ, জমির ফসল। করেরহাট ইউনিয়নের পশ্চিম জোয়ার এলাকা শত শত মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে।

চিনকির আস্তানা রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার রাজ কুমার জানান, পাহাড়ি ঢল ও ভারি বর্ষণে বড়তাকিয়া এলাকায় রেল লাইন ডুবে গেছে। ফলে রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিয়া আহম্মদ সুমন জানান, পাহাড়ি ঢলে উপজেলার বিভিন্ন স্থান প্লাবিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে কি পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি।

কিউএনবি/বিপুল /২রা জুন, ২০১৭ ইং/রাত ১২:৪১