২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ভোর ৫:৪২

লালপুরে কাজে আসছেনা ৩ কোটি টাকার সেতু যান চলছে পাশের ঝুকিপুর্ন সেতু দিয়ে

মোঃ মাজহারুল ইসলাম,লালপুর (নাটোর)থেকেঃ  নির্মানের দু’মাস যেতে না যেতেই সংযোগ সড়ক ভেঙ্গে যাওয়ায় কাজে  আসছেনা নাটোরের লালপুর উপজেলার নাটোর – লালপুর প্রধান সড়কের ভুইয়াপাড়া নামক স্থানে খলিসাডাঙ্গা নদীর উপর ৩ কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত সেতুটি।

কয়েকমাস ধরে জীবনের ঝুকি নিয়ে পাশের পরিত্যাক্ত, ঝুকিপুর্ন সেতু দিয়ে যানবহন চললেও কতৃপক্ষ এখন পর্যন্ত কার্যকরী কোন পদক্ষেপ গ্রহন করেনি । ফলে যে কোন সময়  ঘটে যেতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। নাটোর সড়ক ও জনপথ বিভাগ এবং স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, নাটোর-লালপুর প্রধান সড়কের ভুঁইয়াপাড়ায় খলিসডাঙ্গা নদীর উপর প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যায়ে ৩৬.৬ মিটার দীর্ঘ সেতুটি ২০১৩ সালের জুন মাসে নির্মান কাজ শেষ হয়। এর প্রায় দু’বছর পর ২০১৫ সালের শেষ দিকে সংযোগ সড়ক নির্মান করে যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হয়। কিন্তু কাজে ঠিকাদার মীর শরিফুল আলম নি¤œ মানের উপকরন ব্যবহার এবং প্রয়োজনীয় খোয়া, পাথর ও বিটুমিন না দেয়ায় দু’মাস না যেতেই সংযোগ সড়কের উত্তর দিকের অংশ ভেঙ্গে গর্তের সৃষ্টি হয়। ফলে যানবহন চলাচল ব্যাহত হয়ে পড়ে। এছাড়া সেতুর সংযোগ সড়ক তৈরীর সময় যতটুকু ঢাল করার প্রয়োজন তা না করে ঢাল খুব খাড়া করা হয়েছে। যার ফলে যানবহন সেতুতে উঠতে অনেক সমস্যা হয়। অনেক সময় বোঝাই ভ্যান, রিক্সা, ভুটভুটি, পাওয়ারট্রলি সেতুতে উঠতে পারেনা। এ ব্যাপারে নাটোর সড়ক ও জনপথ বিভাগের সাব ডিভিশনাল ইঞ্জিনিয়ার ইউনুস আলী জানান, ’বিষয়টি তারা অবগত আছেন এবং যেহেতু কাজ হস্তান্তরের ১ বছর সময় পর্যন্ত রক্ষনাবেক্ষনসহ সমস্ত দায় দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের। তাই অতি সত্বর উক্ত স্থান মেরামত করে যান চলাচলের স্বাভাবিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনার লক্ষে তাদের চিঠি দেয়া হয়েছে। খুব শিঘ্রই তারা তা মেরামত করবেন বলে তাকে জানিয়েছে’।

তারিখ: ০৫-০৪-২০১৬/কুইকনিউজবিডি/রাকিব/ সময়: