ব্রেকিং নিউজ
২৬শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | রাত ১০:৩৩

পুলিং এজেন্ট সংকট

 

তরিকুল ইসলাম,ঝিকরগাছা (যশোর) সংবাদদাতা : আসন্ন ঝিকরগাছা পৌরসভা নির্বাচনে কিছু কিছু প্রার্থীর পুলিং এজেন্ট সংকট দেখা দিয়েছেঅ দীর্ঘদিন পর ভোট হওয়ায় এবারকার পৌর নির্বাচনে ৬ জন মেয়র প্রার্থীসহ ৯ ওয়ার্ডে ৬১ জন কাউন্সিলর ও ১৮ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বতা করছেন। ফলে এক হাজার ৭ শত ৫৯ জন পুলিং এজেন্ট লাগবে। আওয়ামীলীগ-বিএনপি স্বতন্ত্র সুবিধাজনক অবস্থায় থাকলেও পুলিং এজেন্ট থাকা নিয়ে বেশ অসুবিধায় রয়েছে অরাজনৈতিক সংগঠনের প্রার্থীরা। জানাগেছে, আসন্ন ১৬ জানুয়ারী নির্বাচনে ৯টি ওয়ার্ডে ৮৬ টি ভোট কক্ষ রয়েছে। ফলে ৬ জন মেয়র প্রার্থীর ৫১৬ জন পুলিং এজেন্ট প্রয়োজন।

এছাড়া ১ নাম্বার ওয়ার্ডে ১৪টি ভোট কক্ষে ১০ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর ১৪০ জন, ২নং ওয়ার্ডে ৭টি ভোট কক্ষে ৯জন কাউন্সিলর প্রার্থীর ৬৩ জন, ৩নং ওয়ার্ডে ১২টি ভোট কক্ষে ১০ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর ১২০ জন, ৪নং ওয়ার্ডে ১০টি ভোট কক্ষে ৫ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর ৫০জন, ৫নং ওয়ার্ডে ১৪টি ভোট কক্ষে ৫ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর ৭০জন, ৬নং ওয়ার্ডে ১৩টি ভোট কক্ষে ৬ জন প্রার্থীর ৭৮জন, ৭নং ওয়ার্ডে ৭টি ভোট কক্ষে ৪ জন প্রার্থীর ২৮জন, ৮নং ওয়ার্ডে ৭টি ভোট কক্ষে ২৮জন ও ৯নং ওয়ার্ডে ১০টি ভোট কক্ষে ১০ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর ১০০ জন পুলিং এজেন্ট প্রয়োজন।

এছাড়া সংরক্ষিত ১,২,৩ নং ওয়ার্ডে ৩৩টি ভোট কক্ষে ৮জন প্রার্থীর ২৬৮ জন, সংরক্ষিত ৪,৫,৬ নং ওয়ার্ডে ৩৭টি ভোট কক্ষে ৮জন প্রার্থীর ২২২ জন ও সংরক্ষিত ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডে ২৪টি ভোট কক্ষে ৪ জন প্রার্থীর ৯৬জন পুলিং এজেন্ট প্রয়োজন। ফলে সব মিলে এক হাজার ৭ শত ৫৯ জন পুলিং এজেন্ট লাগবে বলে জানাগেছে।

কিউএনবি/অনিমা/১৪ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ |সকাল ১০:০৮

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন