ব্রেকিং নিউজ
২৬শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | রাত ১০:৫৪

ইউক্রেন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়া উত্তেজনা চরমে

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইউক্রেন ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার উত্তেজনা এখন চরমে। মূলত ইউক্রেন সীমান্তে রাশিয়ার সেনা সমাবেশকে কেন্দ্র করেই এ উত্তেজনা। ইউক্রেন নিয়ে রাশিয়ার রেড লাইন মানবেন না বলে সাফ জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

মস্কো তার প্রতিবেশী দেশ ইউক্রেনে যে আক্রমণের পরিকল্পনা সাজাচ্ছে তা ‘অত্যন্ত দুরূহ’ করে তুলবেন বলেও সতর্ক করেছেন তিনি। গতকাল এক প্রতিবেদনে এমনটি জানিয়েছে বিবিসি।

গোয়েন্দা সূত্রের বরাতে মার্কিন সংবাদমাধ্যমগুলো প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে, ২০২২ সালের শুরুতে ইউক্রেনে আক্রমণ করতে পারে রাশিয়া। এরই অংশ হিসেবে ইউক্রেন সীমান্তের কাছাকাছি ৯৪ হাজারেরও বেশি রুশ সেনা জড়ো করেছে মস্কো। সেখানে প্রতিনিয়তই মহড়া চালানোর খবর পাওয়া যাচ্ছে। যা নিয়ে উদ্বেগ জানাচ্ছে ইউক্রেন।

উত্তেজনা প্রশমনে করণীয় নিয়ে চলতি সপ্তাহে ভার্চুয়ালি বৈঠকে বসার কথা রয়েছে বাইডেন ও পুতিন। রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ আলাপের আশাবাদ ব্যক্ত করেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন। তবে এ-ও সতর্ক করেন যে, রাশিয়ার দেওয়া কোনো রেড লাইন মেনে নেবেন না। মেরিল্যান্ড অঙ্গরাজ্যে ক্যাম্প ডেভিড সামরিক ঘাঁটিতে সাংবাদিকদের বাইডেন আরও বলেন, পুতিনকে ইউক্রেনে আগ্রাসন চালানো থেকে বিরত রাখার জন্য আমরা বেশ কিছু পরিকল্পনা নিয়েছি। তা বাস্তবায়ন সম্ভব হলে ব্যাপক ও অর্থপূর্ণভাবে রাশিয়া-ইউক্রেন সংকট মেটানো সম্ভব।’ তবে রাশিয়ার বিষয়ে বাইডেন প্রশাসন কেমন সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা সাজিয়েছে তা স্পষ্ট করেননি তিনি। গত মঙ্গলবার রুশ প্রেসিডেন্ট ভাদিমির পুতিন পশ্চিমাদের সামরিক জোট ন্যাটোকে সতর্ক করে বলেন, ইউক্রেন নিয়ে রাশিয়ার ‘রেড লাইন’ যদি ন্যাটো অতিক্রম করে তাহলে তারা বাধ্য হবে পদক্ষেপ নিতে।

ইউক্রেনে লক্ষাধিক সেনা নিয়ে আক্রমণের পরিকল্পনা করছে রাশিয়া : ইউক্রেন সীমান্তে দিনকে দিন সেনা সমাবেশের বিস্তার ঘটাচ্ছে রাশিয়া। প্রতিবেশী ইউক্রেনে ১ লাখ ৭৫ হাজার সেনা নিয়ে বহুমুখী আক্রমণের পরিকল্পনা সাজিয়েছে মস্কো। শুক্রবার এ-সংক্রান্ত এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে মার্কিন প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট।  এতে বলা হয়েছে, আগামী বছরের গোড়ার দিকেই আক্রমণ চালানোর পরিকল্পনা পুতিন সরকারের। এখন পর্যন্ত ইউক্রেন সীমান্তে ভারী অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে অবস্থান করছে ৯০ হাজারের বেশি রুশ সেনা। মার্কিন কর্মকর্তাদের পাশাপাশি গোয়েন্দা নথির বরাতে ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, পরিকল্পিত অভিযানটি একটি বহুমুখী আক্রমণ হতে পারে।

নথিতে দেখা গেছে, রাশিয়া সীমান্ত এলাকার চারটি স্থানে বাহিনী মোতায়েন করছে। যদিও মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদনের বিষয়ে ক্রেমলিনের পক্ষ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। এই প্রতিবেদনের আগে ইউক্রেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী দাবি করেন, ইউক্রেন সীমান্তে ইতিমধ্যে ৯৪ হাজারের কাছাকাছি সেনা মোতায়েন করেছে মস্কো।

 

 

কিউএনবি/রেশমা/৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ/সকাল ১১:৪২

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন