২৩শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | সন্ধ্যা ৬:৪৬

কোয়ারেন্টিন ছাড়াই ১০ দেশের থাইল্যান্ড ভ্রমণের অনুমতি

 

ডেস্ক নিউজ : করোনার ঝুঁকি কম রয়েছে এমন দশটি দেশের জন্য খুলে যাচ্ছে থাইল্যান্ডের দরজা। আগামী ১ নভেম্বর থেকে ওই ১০টি দেশের যাদের করোনা টিকা দেওয়া আছে তারা কোনরমক কোয়ারেন্টিন ছাড়াই থাইল্যান্ড ভ্রমণে যেতে পারবে।

প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চান ওচা এ বিষয়ে বলছেন, এ সিদ্ধন্তের জন্য ঝুঁকি নিতে হচ্ছে কিন্তু দেশের পর্যটন খাতকে বাঁচাতে হলে এর বিকল্প ব্যবস্থা নেই। যুক্তরাষ্ট্র যুক্তরাজ্য, চীন ও জার্মানিসহ ১০টি দেশকে কম ঝুঁকির দেশ হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।

গেলো জুলাই থেকে থাইল্যান্ডে প্রতিদিন করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে ১০ হাজার মানুষ। এখন পর্যন্ত দেশটির মোট ৭ কোটি জনসংখ্যার মধ্যে শতকরা ৩৩ ভাগ জনগণকে টিকার আওতায় আনা হয়েছে। প্রায়ুথ চান ওচা আরো বলেন, ডিসেম্বরের ১ তারিখ থেকে দেশটির সব বিনোদনকেন্দ্র খুলে দেওয়া হবে এবং অ্যালকোহল বিক্রির অনুমোদন দেওয়া হবে। কম ঝুঁকিপূর্ণ এমন ১০টি দেশের পর্যটকদের দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, যখন তারা থাইল্যান্ডে আসবেন, তাদেরকে করোনা ভাইরাসের পরীক্ষায় নেগেটিভ সনদ দেখাতে হবে। পৌঁছানোর পর আর একবার পরীক্ষা করাতে হবে। তবে এ পরীক্ষার খরচ পর্যটক নিজে করবেন নাকি সরকার বহন করবে সে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলা হয়নি। যদি দ্বিতীয় পরীক্ষায় করোনা নেগেটিভ দেখা যায়, তাহলে ওইসব দেশের দর্শনার্থীরা সাধারণ থাই নাগরিকদের মতো অবাধে ভ্রমণ করতে পারবেন।

বালুকাময় সমুদ্র সৈকতের জন্য সারা বিশ্বের পর্যটকদের কাছে জনপ্রিয় থাইল্যান্ড। করোনার কারণে ২০২০ সালে দেশটি পর্যটন খাতে প্রায় ৫০০০ কোটি ডলার লোকসান হয়েছে যা দেশটির ‍দুই দশকেরও বেশি সময়ের মধ্যে সবচেয়ে বড় ধাক্কা।

কিউএনবি/রেশমা/১২ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ/দুপুর ১২:৩৯

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন