ব্রেকিং নিউজ
২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | সকাল ৬:২২

রোনালদোর রেকর্ড ছোঁয়া রাতে ইয়াং বয়েজের উল্লাস

 

স্পোর্টস ডেস্ক : নিজের কাজটি ভালো মতোই করেছিলেন রোনালদো। শুরুতেই এগিয়ে দিয়েছিলেন দলকে। তবে এর কিছুক্ষণ পর বিসাকার লাল কার্ড ১০ জনের দলে পরিণত করে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে। দ্বিতীয়ার্ধে সমতায় ফেরা ইয়াং বয়েজ বড় চমক দেখায় ম্যাচের সময় যখন ত্রিশ সেকেন্ড বাকি। লিনগার্ডের অমার্জনীয় ভুলে থিওসনের দারুণ ফিনিশিং। রুদ্ধশ্বাস জয় ইয়ং বয়েজের।

মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের এফ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের ইয়াং বয়েজের কাছে ২-১ গোলে হেরেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

পুরো ম্যাচে গোলের উদ্দেশে ম্যানইউ শট নিতে পারে কেবল দুটি, সেটিও আবার প্রথম ২৫ মিনিটে! রোনালদোর নেওয়া ওই দুটি শটই লক্ষ্যে ছিল, যার একটিতে মেলে সাফল্য। বলা যায়, ম্যাচের বাকি সময়ে আধিপত্য করে ইয়াং বয়েজ। ৫৪ শতাংশ সময় বল দখলে রেখে তারা গোলের জন্য শট নেয় মোট ১৯টি, যার পাঁচটি লক্ষ্যে।

লিগে গত শনিবার জোড়া গোল করে ম্যানইউর হয়ে পুনরাভিষেক হয় রোনালদোর। এবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও গোল দিয়ে শুরু করলেন। তবে ভাগ্য খারাপ জয়টা আসেনি তার। তবে মাঠে নেমেই প্রতিযোগিতাটিতে ইকার কাসিয়াসের সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ড স্পর্শ করেন পর্তুগিজ তারকা। দুই জনেরই ম্যাচ সংখ্যা ১৭৭টি করে।

ম্যাচের ১৩ মিনিটেই গোলের দেখা পেয়ে যান রোনালদো। বাঁ দিক থেকে ফার্নান্দেসের দারুণ ক্রসে রোনালদোর শট, বল জাল কাপায় ইয়ং বয়েজের। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনালদোর গোল সংখ্যা বেড়ে হলো ১৩৫টি। প্রতিযোগিতাটিতে এই নিয়ে ভিন্ন ৩৬টি দলের বিপক্ষে গোল করে তিনি স্পর্শ করলেন মেসিকে। এর বেশি মেসি ছাড়া নেই আর কারো।

৩৫ মিনিটে ১০ জনের দলে পরিণত হয় ম্যানইউ। প্রতিপক্ষের মিডফিল্ডার ক্রিস্টোফার পেরেইরাকে ফাউল করে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন ইংলিশ ডিফেন্ডার অ্যারন ওয়ান- বিসাকা। তিন মিনিট পর সমতা ফেরানোর সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেন ইয়ং বয়েজ।

৬৬ মিনিটে উইঙ্গার এনগামালেওর গোলে ম্যাচে ফেরে ইয়ং বয়েজ। ৭২ মিনিটে রোনালদো ও ফার্নান্দেসকে তুলে নিয়ে জেসে লিনগার্ড ও নেমানিয়া মাতিচকে মাঠে নামান কোচ উলে গুনার সুলশার। সেই লিনগার্ডের মারাত্মক ভুলেই শেষ মুহূর্তে গোল খেয়ে বসে ম্যানইউ।

ম্যাচ ড্র হতে চলেছে, এমন ভাবনা তখন সবার। কিন্তু ফুটবল খেলা বলে কথা। ম্যাচের বাকি তখন মাত্র ৩০ সেকেন্ড। মহাভুল করে বসেন ম্যানইউর লিনগার্ড। চারপাশে সতীর্থ থাকা সত্বেও ব্যাক পাস করেন গোলরক্ষকে। এরই মধ্যে দ্রুত বল দখলে নিয়ে ম্যানইউর গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ইয়ং বয়েজের থিওসন সিবাচু। জয়ের আনন্দে উল্লাসে ফেটে পড়ে ইয়াং বয়েজ।

এফ গ্রুপে তিন পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে ইয়ং বয়েজ। গ্রুপের অপর ম্যাচ ১-১ গোলে ড্র হয়েছে আটালান্টা ও ভিয়ারিয়ালের মধ্যে।

কিউএনবি/রেশমা/১৫ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ/সকাল ৮:৩৫

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন