ব্রেকিং নিউজ
১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ভোর ৫:২৫

মনিরামাপুরে নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে আচরনবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ ধানেরশীষ প্রার্থীর

 

স্টাফ রিপোর্টার,মনিরামপুর(যশোর) : হুমকি ধামকি দেওয়া পোষ্টার ছিড়ে ফেলাসহ বিভিন্ন ভাবে আচরন বিধি লঙ্ঘনের মধ্য দিয়েই চলছে যশোরের মনিরামপুর পৌরসভা নির্বাচনী প্রচারনা। বুধবার বিএনপির মেয়র প্রার্থী শহীদ ইকবাল হোসেন রিটার্নিং ও সহকারি রিটার্নিং অফিসারের কাছে এ অভিযোগ করেন। তার অভিযোগ আওয়ামীলীগের মেয়র প্রার্থীর কর্মীসমর্থকরা এ ঘটনা ঘটালেও অধ্যাবধি প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী অধ্যক্ষ কাজী মাহমুদুল হাসান।

ধানের শীষ প্রতীকের মেয়র প্রার্থী শহীদ ইকবাল হোসেন অভিযোগ করেন ১১ জানুয়ারি প্রতীক বরাদ্দের পর পৌরশহরের বিভিন্ন স্থানে ধানের শীষ প্রতীকের পোষ্টার টানানো হয়। ওই দিন রাতে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী অধ্যক্ষ কাজী মাহমুদুল হাসান হাকোবা এলাকায় সভা করেন। কিন্তু অভিযোগ রয়েছে সভার পর নৌকা প্রতীকের কর্মীসমর্থকরা পৌরশহরের টানানো ধানের শীষ প্রতীকের অধিকাংশ পোষ্টার ছিড়ে ফেলেন এবং মোটরসাইকেল শোডাউন করেন। এ ছাড়াও ধানের শীষ প্রতীকের নির্বাচনী পরিচালনা কমিটির সভাপতি পৌর বিএনপির সভাপতি খায়রুল ইসলাম, থানা বিএনপির সাধারন সম্পাদক মশিউর রহমান, সদস্য আসাদুজ্জামান মিন্টু, সদর ইউপি চেয়ারম্যান নিস্তার ফারুকের নাম উল্লেখ করে ৩০ জানুয়ারি নির্বাচনের মাঠে বের হলে তাদের জীবননাশ সহ বিভিন্ন হুমকি ধামকি দিয়ে যুবলীগ কর্মী আবুল কালাম তার ফেসবুক আইডিতে স্ট্যাটাস দেন। এছাড়াও অভিযোগ করা হয়েছে প্রতিনিয়িত নৌকা প্রতীকের কর্মী সমর্থকরা ধানেরশীষ প্রতীকের কর্মী সমর্থকদের হুমকি ধামকি দেওয়া অব্যাহত রয়েছে। এ ব্যাপারে বুধবার শহীদ ইকবাল হোসেন রিটার্নিং ও সহকারি রিটার্রিং অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। তবে আওয়ামীলীগের মেয়র প্রার্থী অধ্যক্ষ কাজী মাহমুদল হাসান এ অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। লিখিত অভিযোগ প্রাপ্তীর সত্যতা নিশ্চিত করে সহকারি রিটার্নিং ও উপজেলা নির্বাচন অফিসার সহিদুর রহমান জানান, এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

 

 

কিউএনবি/আয়শা/১৩ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ/রাত ৯:০৯

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন