২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | রাত ৪:৪৫

১৪৭ লক্ষ্যে নেমেই বিপাকে ঢাকা

 

স্পোর্টস ডেস্ক :   টানা তৃতীয় ম্যাচেও ব্যাট হাতে ব্যর্থ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তবে এ ম্যাচে ব্যাটে রান পেলেন কাপ্তান মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। বলের সঙ্গে পাল্লা দিতে না পারলেও অধিনায়কের ব্যাটে চড়েই দেড়শর কাছাকাছি রান করলো জেমকন খুলনা। যাতে মুশফিকদের লক্ষ্য ১৪৭। তবে খুলনার স্পিনে শুরুতেই ৩ উইকেট খুইয়ে বিপাকে ঢাকা। 

আজ সোমবার সন্ধ্যার ম্যাচে টস জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন বেক্সিমকো ঢাকার অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে ওপেনিংয়ে ব্যাটিং করতে নেমে এদিনও ব্যর্থ হন এনামুল হক বিজয় ও সাকিব আল হাসান। বিজয় পাঁচ রান করে আউট হলেও এদিন অবশ্য দুই অঙ্ক স্পর্শ করেন সাকিব। ৯ বলে দুই চারে ১১ রান আসে খুলনার এ ওপেনারের ব্যাট থেকে। 

যাতে মাত্র ১৯ রানেই দুই উইকেট খুইয়ে বসে খুলনা। এর খানিক পরেই দুই ওপেনারের পথে হাঁটেন তিনে নামা জহুরুল ইসলাম অমি (৪)। ফলে শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে ওঠার আগেই খুলনার স্কোর হয়ে যায় ত্রিশে-তিন (৩০/৩)। এরপর অবশ্য চারে নামা ইমরুল কায়েস ও ছয়ে নামা আরিফুল হককে নিয়ে দুটি জুটি গড়ে দলকে সম্মানজনক পর্যায়ে পৌঁছে দেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ইনিংসের শেষ ওভারের দ্বিতীয় বলে আউট হওয়ার আগে তার নামের পাশে যুক্ত হয় মহা-মূল্যবান ৪৫টি রান। যা এসেছে ৪৭টি বল মোকাবেলার মধ্যদিয়ে, মাত্র তিনটি চারের সাহায্যে। তবে শেষ দিকে শুভাগত হোমের মাত্র ৫ বলে ১৫ রানের ছোট্ট এক ক্যামিওতে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৬-এ পৌঁছে যায় খুলনার স্কোর। এর আগে ইমরুল কায়েস ২৯ ও আরিফুল ১৯ রান করে আউট হন। 

এ ইনিংসে খুলনার ব্যাটসম্যানদের জন্য ত্রাস হিসেবে আবির্ভুত হন জাতীয় দলের পেসার রুবেল হোসাইন। চার ওভারে ২৮ রান দিলেও গুরুত্বপূর্ণ ৩টি উইকেট তুলে নেন এই পেসার। এছাড়া তরুণ শফিকুল ইসলাম ২টি, নাসুম আহমেদ ও নাঈম হাসান একটি করে উইকেট লাভ করেন। 

এদিকে, টুর্নামেন্ট শুরুর আগে কাগজে-কলমে অবশ্য সবচেয়ে বেশি সম্ভাবনার কথা বলা হয়েছে বেক্সিমকো ঢাকা ও জেমকন খুলনার ব্যাপারে! কিন্তু মাঠের খেলা শুরুর পর যেন সবচেয়ে বাজে অবস্থায় আছে এ দুটি দলই। প্রথম ম্যাচের শেষ ওভারে আরিফুল হকের অবিশ্বাস্য ব্যাটিংয়ে একটি মাত্র জয় পেয়েছে খুলনা, হেরেছে পরের দুইটিতে।

বেক্সিমকো ঢাকার ক্ষেত্রেও চিত্রটি আরও বাজে। দুই ম্যাচ খেলে ফেললেও জয়ের দেখা পায়নি মুশফিকুর রহীমের দল। এছাড়াও আরেকটি মিল রয়েছে খুলনা ও ঢাকার। নিজেদের সবশেষ ম্যাচে দুটি দলই গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের বিপক্ষে অলআউট হয়েছে ১০০ রানের নিচে। পরপর দুটি করে ম্যাচ হারা খুলনা ও ঢাকা এবার একে অপরের মুখোমুখি। পয়েন্ট টেবিলের অবস্থান খানিকটা শক্ত হবে আজকের ম্যাচে জয়ী দলের।

এদিকে, খুলনার একাদশে এসেছে একটি পরিবর্তন। লেগস্পিনার রিশাদ হোসেনের জায়গায় নেয়া হয়েছে শুভাগত হোম চৌধুরীকে। আর ঢাকার একাদশে পরিবর্তন এসেছে চারটি। সাব্বির রহমান, আবু হায়দার রনি, মেহেদি হাসান রানা ও শাহাদাত হোসেন দীপুর বদলে সুযোগ পেয়েছেন রবিউল ইসলাম রবি, ইয়াসির আলি রাব্বি, নাইম হাসান ও শফিকুল ইসলাম।

বেক্সিমকো ঢাকা একাদশ
মুশফিকুর রহীম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ নাইম শেখ, তানজিদ হাসান তামিম, আকবর আলী, নাইম হাসান, মুক্তার আলি, রুবেল হোসেন, রবিউল ইসলাম রবি, ইয়াসির আলি রাব্বি শফিকুল ইসলাম ও নাসুম আহমেদ।

জেমকন খুলনা একাদশ
সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), ইমরুল কায়েস, শুভাগত হোম চৌধুরী, আলআমিন হোসেন, জহুরুল হক অমি, এনামুল হক বিজয়, (উইকেটরক্ষক) শামীম পাটোয়ারি, আরিফুল হক, শফিউল ইসলাম ও শহীদুল ইসলাম।

কিউএনবি/অনিমা/৩০শে নভেম্বর, ২০২০ ইং/রাত ৯:২৬

↓↓↓ফেসবুক শেয়ার করুন